সৌদি কিংবা অন্য কেউ ইরানি তেলের জায়গা পূরণ করতে পারে না: তেহরান

সৌদি কিংবা অন্য কেউ ইরানি তেলের জায়গা পূরণ করতে পারে না: তেহরান

 

নিষেধাজ্ঞার কারণে ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের তেলের শূণ্যস্থান সৌদি আরব পূরণ করতে সক্ষম বলে দেশটির যুবরাজ মুহাম্মাদ বিন সালমান যে বাগাড়ম্বর করেছেন তা নাকচ করে দিয়েছেন ইরানের তেলমন্ত্রী বিজান জাঙ্গানেহ। তিনি বলেছেন, এ ধরনের দাবি আন্তর্জাতিক বাজার বিশ্বাস করবে না।

জাঙ্গানেহ সোমবার বলেন, বিন সালমানের বক্তব্য শুনে মনে হচ্ছে তিনি মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের চাপের মুখে এমন বক্তব্য দিতে বাধ্য হয়েছেন।

গত শুক্রবার সৌদি যুবরাজ মার্কিন সংবাদ মাধ্যম ব্লুমবার্গকে দেয়া সাক্ষাৎকারে বলেন, পরমাণু সমঝোতা থেকে বের হয়ে যাওয়ার পর তেহরানের ওপর নিষেধাজ্ঞা পুনর্বহাল করার পর ইরানি তেলের শূণ্যস্থান পূরণের বিষয়ে তার দেশ আমেরিকার কাছে যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল তা রক্ষা করেছে। বিন সালমান দাবি করেন, ইরান দৈনিক সাত লাখ ব্যারেল তেল কম উত্তোলন করছে।

জবাবে ইরানি তেলমন্ত্রী বলেন, সৌদি আরব কিংবা অন্য কোনো দেশের এই ঘাটতি পূরণ করার সক্ষমতা নেই। তিনি বলেন, বাজার পরিস্থিতি এবং আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের দাম বেড়ে যাওয়েই প্রমাণ করে বাজারে তেলের ঘাটতি রয়েছে; আশংকা করা হচ্ছে বাজারে এ ঘাটতি মারাত্মক আকার ধারণ করবে। তিনি আরো বলেন, সৌদি আরব বাজারে যে বাড়তি তেল সরবরাহ করছে তা নতুন করে উত্তোলন করা নয় বরং তা হচ্ছে আগে উত্তোলন করা তেল।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট