সৌম্যের রেকর্ড ইনিংস, চ্যাম্পিয়ন আবাহনী

সৌম্যের রেকর্ড ইনিংস, চ্যাম্পিয়ন আবাহনী

তানবীর হায়দারে ঝড়ো সেঞ্চুরিতে তিনশো ছাড়িয়ে আবাহনীকে চ্যালেঞ্জ দিয়েছিল শেখ জামাল ধানমন্ডি। চ্যাম্পিয়ন হতে জিততেই হবে এমন চ্যালেঞ্জে নেমে  সৌম্য সরকার ছারখার করে দিয়েছেন শেখ জামালের বোলারদের। লিস্ট-এ ক্রিকেটে তার সর্বোচ্চ ছক্কার রেকর্ড, প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে ডাবল সেঞ্চুরির রেকর্ডের দিনে প্রতিপক্ষকে গুঁড়িয়ে টানা দ্বিতীয়বারের মতো ঢাকা প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে আবাহনী লিমিটেড।

শেখ জামালের ছুড়ে দেওয়া ৩১৮ রানের পাহাড় লক্ষ্য মাত্র ১ উইকেট হারিয়ে ছুঁয়ে ফেলে আবাহনী। লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে বাংলাদেশের প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে ডাবল সেঞ্চুরি করেন সৌম্য সরকার। সেঞ্চুরি তুলে নেন আবাহনীর আরেক ওপেনার জহুরুল ইসলাম। এই দুইয়ের ব্যাটেই চ্যালেঞ্জিং পুঁজি টপকে শিরোপা নিজেদের করে ঢাকার জায়ান্টরা।

সাভারের বিকেএসপিতে টস জিতে আগে ব্যাটিং বেছে নিয়েছিল শেখ জামাল। তানবীর হায়দারের অপরাজিত ১৩২ রানে ভর করে ৯ উইকেটে ৩১৭ রানের পুঁজি গড়েছিল শেখ জামাল। এরপর সৌম্য ও জহুরুলের ৩১২ রানের ওপেনিং জুটিতে জয়ের কাজটা সেরে ফেলে আবাহনী। লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে ওপেনিংয়ে তো বটেই, যে উইকেটেই এটি বাংলাদেশের সর্বোচ্চ রানের জুটি।

১২৮ বলে ১০০ রান করে জহুরুল ফিরলেও সৌম্য থেকে যান অপরাজিত। ১৫৩ বলে ২০৮ রানের ইনিংস তিনি সাজান ১৪টি চার ও ১৬টি ছক্কায়। লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে বাংলাদেশের পক্ষে এক ইনিংসে সর্বোচ্চ ছক্কার কীর্তিতেও নিজের নাম লিখেছেন সৌম্য।

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ সংক্ষেপে ঢাকা লিগ হিসেবে পরিচিত। দেশের ঘরোয়া ক্রিকেটের সবচেয়ে মর্যাদার এই ক্রিকেট আসর ২০১৩ সালে লিস্ট ‘এ’ মর্যাদা পায়। এরপর টানা দ্বিতীয় ও সব মিলে তৃতীয়বারের মতো শিরোপা পেল আবাহনী।

আর ১৯৭৪-৭৫ মৌসুম থেকে এ পর্যন্ত ৪২ আসরে এটি আবাহনীর রেকর্ড ২০তম শিরোপা। শুরুতে প্রথম বিভাগ নামে হলেও ১৯৮৭-৮৮ মৌসুম থেকে প্রিমিয়ার লিগে রূপান্তরিত হয় লিগটি। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৯ বার শিরোপা জিতেছে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব। লিস্ট এ মর্যাদার পর যদিও কখনোই চ্যাম্পিয়ন হতে পারেনি দলটি।

এদিন মিরপুরে দিনের অন্য ম্যাচে প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাবকে ৮৮ রানে হারায় লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জ। আবাহনীর সমান ২৬ পয়েন্ট নিয়েও নেট রান রেটে পিছিয়ে থাকায় রানার্সআপ হয়েছে রূপগঞ্জ। ২০ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় হয়েছে প্রাইম দোলেশ্বর স্পোর্টিং ক্লাব। এদিন মোহামেডানকে ৩ রানে হারায় দলটি।

সুপার লিগে ৬ দলের মধ্যে ষষ্ঠ স্থানে থেকে আসর শেষ করল মোহামেডান। সব মিলে ১৬ ম্যাচে ১৪ পয়েন্ট তাদের। ১৬ পয়েন্ট নিয়ে প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাব পঞ্চম ও ১৮ পয়েন্ট নিয়ে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব হয়েছে চতুর্থ।

*রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন*
সম্পর্কিত সংবাদ
Leave a reply
ডেস্ক রিপোর্ট