স্বাস্থ্যের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর ৫টি অভ্যাস

স্বাস্থ্যের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর ৫টি অভ্যাস

স্বাস্থ্যই সকল সুখের মূল। কারণ স্বাস্থ্যের প্রভাব সরাসরি আমাদের মনের ওপর পরে থাকে। অনেক সময় অনেকে ভুল করে কিছু খারাপ অভ্যাস তৈরি করে ফেলে যা স্বাস্থ্যের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর। আসুন দেখে নেই স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর ৫টি অভ্যাস-

১. নখ কামড়ানো

নখ খাওয়ার অভ্যাস রয়েছে অনেকের। যাদের এই অভ্যাস রয়েছে তারা যে কোনও স্থানেই নখ কামড়াতে থাকেন। সমস্যা হলো সারাদিন কতো জীবাণুযুক্ত স্থানেই না আপনি হাত দিয়েছেন, আপনার এই নখ কামড়ানোর অভ্যাসের কারণে জীবাণু সরাসরি নখ থেকে পেটে চলে যায়। এটি অবশ্যই স্বাস্থ্যের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর।

২. রাতে না ঘুমানো

রাতে না ঘুমিয়ে জেগে বসে থাকা অনেকেরই প্রিয় বদ অভ্যাস। কিন্তু এর ফলে আপনি নিজের কতোটা মারাত্মক ক্ষতি করছেন তা একটু বয়স হলেই টের পাবেন। রাতে না ঘুমানোর কারণে দেহের ইমিউন সিস্টেম একেবারে নষ্ট হয়ে যায়। যার কারণে দেহে খুব সহজে বাসা বাঁধে মারাত্মক সব রোগ। তাই রাতের বেলা ৬-৮ ঘণ্টার ঘুম কখনোই ভুলে যাওয়া চলবে না।

৩. সারাক্ষণ কানে হেডফোন লাগিয়ে রাখা

ইদানীং ইয়াং জেনারেশন রাস্তাঘাটে চলতে গেলেই কানে হেডফোন লাগিয়ে ঘুরে বেড়ান। এটি স্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর। এতে করে কম বয়সে শ্রবণশক্তি হ্রাস পাওয়ার মতো সমস্যায় পড়তে দেখা যায় অনেককেই। এছাড়াও হতে পারে কানের নানা ইনফেকশনের সমস্যা।

৪. নাক খোঁচানো

খুব সাধারণ এই কাজটি আমরা অনেকেই যখন তখন যেখানে সেখানে করে থাকি। একটু অবসর পেলেই নাক খোঁচাতে বসে যান এমন মানুষের সংখ্যা নেহায়েত কম নয়। কিন্তু এই কাজটির ফলে আপনি নিজের স্বাস্থ্যের মারাত্মক ক্ষতি করছেন। নাকের সাথে আমাদের মুখ, চোখ এবং মস্তিষ্কের সরাসরি সংযোগ রয়েছে। যেখানে সেখানে নাক খোঁচানোর ফলে আপনার হাতের মাধ্যমেই এইসকল অঙ্গে প্রবেশ করছে জীবাণু। সুতরাং সাবধান।

৫. ভারী ব্যাগ বহন করা

প্রতিদিন অফিসের মানুষজন কিংবা স্কুল কলেজে যাওয়ার সময় বাচ্চারাও অনেক ভারী ব্যাগ বহন করে থাকে। এটি স্বাস্থ্যের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর। প্রয়োজনের অধিক জিনিসের কারণে প্রতিদিন ভারী ব্যাগ বহন কাঁধ ও মেরুদণ্ডের হাড়ের স্থায়ী ক্ষতি করে ফেলে।

*রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন*
সম্পর্কিত সংবাদ
Leave a reply
ডেক্স রিপোর্ট