স্মার্টফোনের কারণেই জানেন মারাত্মক এই মারণরোগে আক্রান্ত হতে পারেন?

স্মার্টফোনের কারণেই জানেন মারাত্মক এই মারণরোগে আক্রান্ত হতে পারেন?

আজকাল কমবেশি সকলেই প্রযুক্তিনির্ভর৷ কথাটি অস্বীকার করার উপায় নেই৷ আর, সেই প্রযুক্তির একটা গুরুত্বপূর্ণ অংশ হল স্মার্টফোন৷ দিনের শুরু থেকে শেষ, প্রয়োজনে অপ্রয়োজনে প্রতিনিয়তই আমাদের সঙ্গে দেয় ডিভাইসটি৷ দায়ী অবশ্য ডিভাইসটির বহুমুখী ফিচার৷ কিন্তু, অতিরিক্ত পরিমান স্মার্টফোনের ব্যবহার ডেকে আনতে পারে মারণ ব্যাধি৷ বিষয়টি নিয়ে গবেষণা করে মার্কিন যুক্তরাস্ট্রের ন্যাশানাল ইন্সটিটিউট অফ হেলথের ন্যাশানাল টক্সিকোলজি প্রোগ্রাম৷

গবেষণার তথ্য জানাচ্ছে, হার্ট, ব্রেন এবং অ্যাড্রিনাল গ্ল্যান্ডে ক্যান্সার হওয়ার প্রবণতাকে অনেকাংশে বাড়িয়ে দেয় এই স্মার্টফোন৷ 2G এবং 3G সেল ফোনগুলিতে ব্যবহার করা হয় অতিরিক্ত পরিমানে রেডিও ফ্রিকোয়েন্সি রেডিয়েশন (আরএফআর)৷ যার সরাসরি প্রভাব পড়ে মানবদেহের উপর৷ পুরো বিষয়টি ইদুঁরের উপর পরীক্ষা করেন গবেষকরা৷ আর সেখান থেকেই সামনে আসে তথ্যটি৷

গবেষণার জন্য জীবজন্তদের জন্য বিশেষভাবে বানান হয়েছিল অ্যানিমাল চেম্বার৷ আর, সেখানেই পরীক্ষা করা হয় বিষয়টি৷ সেখান থেকে উঠে আসা তথ্য রীতিমত ভাঁজ ফেলেছে গবেষক সহ সাধারণের কপালে৷ তাই, শুধুমাত্র প্রয়োজনেই ব্যবহার করুন ডিভাইসটিকে৷ কারণ, অকারণে স্মার্টফোনটির সঙ্গে সখ্যতা আপনার জন্যই হতে পারে ক্ষতিকারক৷ এর আগেও একাধিকবার স্মার্টফোনের ক্ষতিকারক দিক নিয়ে গবেষণা হয়েছে৷

প্রতিনিয়ত মানবদেহকে কীভাবে ক্ষতিগ্রস্থ করে চলেছে ডিভাইসটি? বিষয়টি নিয়ে একাধিকবার চুল চেরা বিশ্লেষণ সামনে এসেছে৷ সংবাদ মাধ্যমেও প্রকাশিত হয়েছে সেই গবেষণার অংশ৷ তারপরেও সাধারণের মধ্যে দেখা যায়নি কোন ইতিবাচক পরিবর্তন৷ তবে, কারণ অবশ্য একটাই৷ আকর্ষণীয় ফিচারস৷ ইদানীং, স্মার্টফোনের একাধিক আধুনিক ফিচারস সাধারণ মানুষের নিত্যদিনের অভ্যেসে পরিণত হয়েছে৷ আর, সেই মোহ থেকেই বেরিয়ে আসতে অক্ষম বিশ্ববাসী৷

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট