হামলা নয়, ব্যক্তিগত কারণে দেশে ফিরছেন তামিম

হামলা নয়, ব্যক্তিগত কারণে দেশে ফিরছেন তামিম

 

ইংল্যান্ডে এসেক্সের হয়ে কাউন্টি খেলতে যাওয়া তামিম ইকবাল দেশে ফিরে আসছেন-গতকালের এমন সংবাদ পরেই বিষয়টি নিয়ে রহস্য সৃষ্টি হয়। প্রশ্ন ওঠে হুট করে কেনই বা লন্ডন ছেড়ে দেশে ফিরছেন এই ড্যাসিং ওপেনার?

গতকাল ও আজ গণমাধ্যমের খবরে বলা হয় পরিবারের ওপর ‘এসিড’ নিক্ষেপের ভয়ে দেশে ফিরছেন তামিম।

খবরে বলা হয়, পরশু রাতে সপরিবার রাতের খাবার খেয়ে রেস্টুরেন্ট থেকে বাসায় ফিরছিলেন তামিম ইকবাল। ঠিক তখনই কয়েকজন তাদের ধাওয়া করে। তবে  দৌড়ে নিরাপদ আশ্রয়ে গিয়ে বেঁচেছেন তারা। আক্রমণকারিদের হাতে ওই সময় এসিড ছিল বলেও খবরে বিসিবির এক কর্মকর্তার বরাত দিয়ে উল্লেখ করা হয়।

তবে নিজের অফিসিয়াল ফেইসবুক পাতায় সেই খবর উড়িয়ে দিলেন তামিম। বাংলাদেশ সময় বুধবার সকাল ১১টার দিকে এক পোস্টে তামিম এসেক্সের হয়ে এক ম্যাচ খেলে হঠাৎ করেই ফেরার কারণ দেখিয়েছেন ‘ব্যক্তিগত’।

tamim

এসেক্সের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত বিবৃতিতেও বলা হয়, তামিম ব্যক্তিগত কারণে দেশে ফিরছেন। তামিমের দেশে ফেরা নিয়ে গণমাধ্যমকে অনুরোধ করা হয় তামিমের প্রাইভেসি যেনো ক্ষুন্ন না হয় সে দিকে খেয়াল রাখতে।

তিনি লিখেছেন, আমি আমার সব ভক্ত ও শুভাকাঙ্খীকে জানাতে চাই যে, এসেক্সে আমার মৌসুম আগেই শেষ করে দেশে ফিরছি ব্যক্তিগত কারণে। কিছু সংবাদমাধ্যম রিপোর্ট করেছে যে আমরা হেইট ক্রাইমের শিকার হয়েছি। এটি আসলে সত্যি নয়।

তিনি লিখেছেন, ভবিষ্যতে আবার ইংল্যান্ডে ফিরতে তিনি মুখিয়ে আছেন।

তামিম লিখেছেন, ক্রিকেট খেলার জন্য আমার প্রিয় জায়গাগুলির একটি ইংল্যান্ড এবং আগে চলে যেতে হওয়ার পরও এসেক্স আমার প্রতি ছিল দারুণ সৌজন্যময়। সব ভক্ত ও শুভাকাঙ্খীকে আমি ধন্যবাদ জানাচ্ছি তাদের ভাবনা ও নানা বার্তার জন্য। ভবিষ্যতেও ইংল্যান্ডে খেলার অপেক্ষায় থাকব আমি।

উল্লেখ, স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা ও পুত্র আরহাম ইকবাল খানকে নিয়ে ৭ জুলাই ইংল্যান্ডে যান তামিম। দেশে ফেরার কথা ছিল আগামী মাসের শুরুতে। পরিবার নিয়ে থাকার জন্য লন্ডনে এক মাসের জন্য একটি বাসাও ভাড়া নিয়েছিলেন তিনি।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট