হিজাব যখন ফ্যাশন

হিজাব যখন ফ্যাশন

হিজাব বর্তমান সময়ে একটি ফ্যাশনে পরিণত হয়ে গেছে। আগের দিনের নারীরা বোরকার সাথে হিজাব ব্যবহার করতেন। তখন হিজাব পরা হতো পর্দার উদ্দেশ্যে। কিন্তু বর্তমানে হিজাব শুধু পর্দা করার জন্য ব্যবহৃত হয় না। ফ্যাশন ট্রেন্ড হিসেবে হিজাব বর্তমানে ছড়িয়ে পড়েছে সব বয়সের নারী ও তরুণীদের মাঝে।

পর্দা করা ছাড়াও হিজাবের আরো উপকারিতা রয়েছে। বাইরের ধূলাবালি ও ক্ষতিকর সূর্যকিরণ থেকে ত্বক এবং চুলের ক্ষতি হয়। তাই ত্বক এবং চুলকে রক্ষা করার একটি ভাল উপায় হতে পারে হিজাব ব্যবহার। শুধু বোরকার সাথে নয়, হিজাব পরতে পারেন শাড়ি, কামিজ, কুর্তা বা অন্য যেকোনো পোশাকের সাথে। স্কুল-কলেজসহ সকল কর্মস্থলে মেয়েরা অনায়াসে ব্যবহার করতে পারেন হিজাব। শুধু প্রতিদিনের কর্মস্থল বা স্কুল কলেজে নয় অনেক বিয়ের অনুষ্ঠানে কনেকে আজকাল হিজাব পড়ে উপস্থিত হতে দেখা যায়।

পোশাকের রং ও ধরণকে মাথায় রেখে হিজাব বাছাই করতে হবে। পোশাকের রঙের সাথে মিলিয়ে বা বিপরীত রঙের হিজাব ব্যবহার করতে পারেন। যদি পোশাকটি বেশি নকশা করা বা প্রিন্টের হয় তবে সেক্ষেত্রে একরঙা হিজাব নির্বাচন করুন। আবার পোশাকটি হালকা কাজের বা একরঙা হলে তার জন্য বেছে নিন বিপরীত রঙের বা নকশা করা ও প্রিন্টের হিজাব।

হিজাব পড়ার আগে অবশ্যই পোশাকের হাতার দিকে নজর দিন। পোশাকের হাতা যেন অবশ্যই ফুলহাতা বা থ্রি কোয়ার্টার হয়। কারণ হিজাবের সাথে ছোট হাতার পোশাক একদম বেমানান। বাজারে কটন, লেস, জর্জেট ও স্যাটিনসহ নানা ধরণের কাপড়ের হিজাব দেখা যায়। কাপড়ের মান ও নকশার ওপর ভিত্তি করে এগুলোর দাম নির্ধারণ করা হয়েছে। নিজের বাজেটের মধ্যে বেছে নিতে পারেন পছন্দের হিজাব।

হিজাব শুধু পর্দা করার ক্ষেত্রেই নয়, নারীদের সৌন্দর্য বর্ধনেও পিছিয়ে নেই। ইন্টারনেটে বিভিন্ন পেজ, সাইট, ভিডিও রয়েছে যেখানে নানাভাবে হিজাব পরার পদ্ধতি ছবিসহ বর্ণনা করা থাকে। হিজাব পড়ার আগে চোখ বুলিয়ে নেওয়া যায় এসব পেজগুলোতে। সেখান থেকেই পেয়ে যাবেন আপনার রুচিমত একটি স্টাইল।

বর্তমানে হাল ফ্যাশনের একটি অংশ হিসেবে হিজাব বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। তাই নতুন ট্রেন্ডের সাথে তাল মিলিয়ে বাজার ঘুরে আপনিও বেছে নিতে পারেন আপনার পছন্দমত হিজাবটি। আর পর্দা করার পাশাপাশি নিজেকে দিতে পারেন ফ্যাশানেবল একটি লুক। নিজেকে করে তুলতে পারেন মার্জিত এবং অনেকটাই আলাদা।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট