১৪৩ রানেই অলআউট বাংলাদেশ

১৪৩ রানেই অলআউট বাংলাদেশ

জিম্বাবুয়েকে প্রথম ইনিংসে ২৮২ রানে আটকানো গেলেও প্রথম ইনিংসে ব্যাটিং ভালো হলো না বাংলাদেশের। বোলারদের সফলতায় প্রথম সেশনটি নিজের করে নিলেও দুই সেশনে সব ছাপিয়ে জায়গা করে নেয় ব্যাটিং ব্যর্থতা! ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতায় দ্বিতীয় দিনটি হয়ে থাকলো জিম্বাবুয়ের। বাংলাদেশ প্রথম ইনিংসে অলআউট হয়েছে ১৪৩ রানে। জিম্বাবুয়ে এগিয়ে থাকলো ১৩৯ রানে।

গতকাল শনিবার চায়ের শহর খ্যাত সিলেটে টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে প্রথম দিনে ৫ উইকেটে ২৩৬ রান তোলে জিম্বাবুয়ে। তবে দ্বিতীয় দিন মধ্যাহ্ন বিরতির আগে ২৮২ রানের অল আউট হয় সফরকারীরা।

বোলাররা নিজেদের দায়িত্বটা দারুণভাবে সামলে নিলেও আরও একবার বেসামাল ব্যাটিংয়ে লণ্ডভণ্ড হলো টাইগার শিবির। নিজেদের প্রথম ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে মুহূর্তেই যেন কালবৈশাখি ঝড়ের কবলে শতচ্ছিন্ন হয় বাংলাদেশের টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানরা।

ইনিংসের চতুর্থ ওভারের পঞ্চম বলে টেন্ডাই চাতারার বলে বোল্ড হয়ে ব্যক্তিগত ৫ রানে সাজঘরে ফিরে যান ইমরুল। দলীয় রান তখন ৮। আর দলীয় ১৪ রানের মাথায় নবম ওভারের তৃতীয় বলে জার্ভিসের বলে চাকাভার তালুবন্দি হয়ে মাঠ ছাড়েন লিটন (৯)।

এর পর এক ওভারেই শান্ত ও অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে ফিরিয়ে বাংলাদেশের ওপর চাপের পাহাড় ছুড়ে দেন জিম্বাবুয়ের পেসার টেন্ডাই চাতারা।

তখনো দুই অভিজ্ঞ ক্যাম্পেইনার মুমিনুল হক ও মুশফিকুর রহিমের ব্যাটে ভরসা খুঁজছিল ১৯ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে ফেলা বাংলাদেশ। দুজন ধীরে ধীরে চাপটাও সামলে উঠছিলেন। কিন্তু বিধি বাম! দলীয় ৪৯ রানে সিকান্দার রাজার বলে স্লিপে ক্যাচ তুলে সাজঘরে ফিরেন বাংলাদেশের টেস্ট স্পেশালিস্ট মুমিনুল। তার ব্যাট থেকে আসে ১১ রান।

চরম ব্যাটিং বিপর্যয়েও মুশফিকের ব্যাটের দিকে তাকিয়ে আশা বাঁচিয়ে রেখেছিল স্বাগতিকরা। কিন্তু এবার আর নির্ভরতার প্রতীক হয়ে উঠতে পারলেন না মুশি। দলীয় ৭৮ রানে কাইল জার্ভিসের বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফিরেন তিনি। ৫৪ বলে ৩১ রান আসে তার ব্যাট থেকে।

এর পর আরিফুলের সঙ্গে জুটি বেঁধে সাময়িক প্রতিরোধ গড়লেও ব্যক্তিগত ২১ রান করে শন উইলিয়ামসের বলে ফিরেন মেহেদি হাসান মিরাজও। দলীয় ১৩১ রানে ৮ রান করা তাইজুল ও ১৪৩ রানে ৪ রান করা অপু সিকান্দার রাজার দ্বিতীয় ও তৃতীয় শিকারে পরিণত হন। ৫১তম ওভারের শেষ বলে আবু জায়েদ রান আউট হলে ১৪৩ রানে থামে টাইগারদের রানের চাকা।

জিম্বাবুয়ের হয়ে টেন্ডাই চাতারা ১৯ রানে ৩টি ও সিকান্দার রাজা ৩৫ রান দিয়ে সমান ৩টি উইকেট নেন। এছাড়া কাইল জার্ভিস ২টি ও শন উইলিয়ামস নেন ১টি উইকেট।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

বাংলাদেশ: ১৪৩/১০ (৫১ ওভার) (লিটন ৯, ইমরুল ৫, মুমিনুল ১১, শান্ত ৫, মাহমুদউল্লাহ ০, মুশফিক ৩১, আরিফুল ৪১*, মিরাজ ২১, তাইজুল ৮, নাজমুল ৪, আবু জায়েদ ০; জার্ভিস ২/২৮, চাতারা ৩/১৯, মাভুটা ০/২৭, রাজা ৩/৩৫, ওয়েলিংটন ০/২১, উইলিয়ামস ১/৫ )।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট