২০১১ বিশ্বকাপ ফাইনালে ভারতের জেতা নিয়ে রানাতুঙ্গার কেন সন্দেহ?

২০১১ বিশ্বকাপ ফাইনালে ভারতের জেতা নিয়ে রানাতুঙ্গার কেন সন্দেহ?

 

২০১১ সালের বিশ্বকাপ ফাইনাল নিয়ে অর্জুনা রানাতুঙ্গার কেন ‘সন্দেহ’ হচ্ছে, তা বুঝতে পারছেন না ভারতীয় ক্রিকেটাররা। গৌতম গম্ভীর, আশিস নেহেরা বিশ্বকাপজয়ী দলের সদস্য ছিলেন। রানাতুঙ্গার মুখ থেকে এমন কথা শুনে দুজনেই খেপেছেন।

এই প্রথম নয়। আগেও বিভিন্ন সময়ে লঙ্কান কিংবদন্তি ওই ম্যাচটি নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। তার জোর দাবি, ম্যাচটিতে ফিক্সিং হয়েছিল। লঙ্কান ক্রিকেটাররা তাতে জড়িত ছিলেন।

রানাতুঙ্গার মতো মানুষ যখন এভাবে কথা বলেন, তখন বিষয়টি নিয়ে ভাবতেই হয়। সাবেক লঙ্কান অধিনায়ক বিশ্বকাপের সময় ধারাভাষ্য দিতে ভারতেই ছিলেন। ঠিক কী কারণে তিনি ম্যাচটি নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন, তা খোলাসা না করলেও মাঝে মাঝে কিছু কারণের কথা উল্লেখ করেন।

প্রায় বছর দুই আগে কোনো এক অনুষ্ঠানে বক্তৃতা দেয়ার সময় বলেছিলেন, ‘ফাইনালের আগে বিস্ময়করভাবে বেশ কয়েকজন খেলোয়াড় ইনজুরিতে পড়ে। অথচ এমনটা হওয়ার কথা ছিল না।’

‘শচীন যখন আউট হয়ে গেল, তখন ম্যাচ আমাদের হাতে। কিন্তু ছেলেরা এমন ফিল্ডিং শুরু করলো, যা ভাবা যায় না।’ যুক্তি রানাতুঙ্গার।

এসব কথার বাইরে কিছু একটা প্রমাণ থাকার দাবি করেন তিনি। সম্প্রতি নিজের ফেসবুক পেজে পোস্ট করা এক ভিডিওতে বলেছেন, ‘আমি এখনই সবকিছু প্রকাশ করতে পারি না। কিন্তু একদিন অবশ্যই করবো। একটা তদন্ত হওয়া উচিত।’

গৌতম গম্ভীর এমন কথা শুনে এনডিটিভিকে বলেন, ‘তার অভিযোগ শুনে আমি হতবাক। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সম্মানীয় ব্যক্তির মুখ থেকে এমন কথা গুরুত্বপূর্ণ। আমি মনে করি প্রমাণসহ তার কথা বলা উচিত।’

শ্রীলঙ্কা ওই ম্যাচে আগে ব্যাট করে ২৭৪ রান সংগ্রহ করে। জবাব দিতে নেমে গৌতম গম্ভীর ৯৭ রান করে দলকে জয়ের পথে রাখেন।

আশিস নেহেরা বলছেন, ‘তার মতো মানুষ এমন কথা বললে হতাশ হতে হয়। কিন্তু আমি মনে এসবে পাত্তা দেয়ার কিছু নেই। এমন কথার শেষ নাই। আমি যদি বলি ১৯৯৬ সালে শ্রীলঙ্কা কীভাবে বিশ্বকাপ জিতেছিল, সেটা কি ভালো শোনাবে?’

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট