৫ ছাত্রীর জবানবন্দি আহসানউল্লাহ’র অধ্যাপকের বিরুদ্ধে

৫ ছাত্রীর জবানবন্দি আহসানউল্লাহ’র অধ্যাপকের বিরুদ্ধে

যৌন হয়রানির মামলায় গ্রেফতার ঢাকার আহসানউল্লাহ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগী অধ্যাপক মাহফুজুর রশিদ ফেরদৌসের বিরুদ্ধে জবানবন্দি দিয়েছেন পাঁচ ছাত্রী।

সংশ্লিষ্ট আদালত পুলিশের সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা এসআই পার্থ চট্টপাধ্যায় সাংবাদিকদের এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

বৃহস্পতিবার ঢাকার মহানগর আদালতে তারা জবানবন্দি দেন। পরে এক আইনজীবীর জিম্মায় বাড়ি ফিরে যান তারা

পার্থ চট্টপাধ্যায় জানান,  বৃহস্পতিবার মহানগর হাকিম নুরুন্নাহার ইয়াসমিনের খাস কামরায় দুই ছাত্রী জবানবন্দি দেন। বাকি তিনজন মহানগর হাকিম সাদবীর ইয়াসির আহসান চৌধুরী, মহানগর হাকিম গোলাম নবী ও মহানগর হাকিম মারুফ হোসেনের খাস কামরায় জবানবন্দি নেন।

পরে শুনানিতে মহিলা আইনজীবী সমিতির পক্ষ থেকে ফাহমিদা আক্তার রিংকী তাদেরকে তার জিম্মায় ছেড়ে দেয়ার আবেদন করেন।

তড়িৎ কৌশল বিভাগের ওই অধ্যাপক বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টরের দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ গত শনিবার তাকে সাময়িক বরখাস্ত করে।

দুই ছাত্রীকে ধর্ষণ ও যৌন নিপীড়নের অভিযোগে বুধবার ভোরে কলাবাগান থানাধীন এলাকার একটি বাড়ি থেকে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

বুধবার দুপুরে ঢাকা মহানগর হাকিম দেলোয়ার হোসেনের আদালতে মোহাম্মদ মাহফুজুর রশিদ ফেরদৌসকে হাজির করে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা কলাবাগান থানার উপপরিদর্শক শামীম আহমেদ সাত দিনের পুলিশ রিমান্ডের আবেদন করেন আদালত উভয় পক্ষের শুনানি শেষে দুই দিনের রিমানন্ড মঞ্জুর করেন।

সম্পর্কিত সংবাদ
নিজস্ব প্রতিবেদক