আন্তর্জাতিক ফুটবলকে বিদায় বললেন পিকে

আন্তর্জাতিক ফুটবলকে বিদায় বললেন পিকে

৩১ বছর বয়সেই আন্তর্জাতিক ফুটবলকে বিদায় বলে দিলেন জেরার্দ পিকে। শনিবার এক ঘোষণায় স্পেনের জার্সি আর পড়বেন না বলে নিশ্চিত করেছেন এই সেন্টার ব্যাক।

বিশ্বকাপে স্বাগতিক রাশিয়ার কাছে হেরে শেষ ষোলোতে বিদায়ের হতাশায় ডুবতে হয়েছে স্পেনকে। তার কয়েক দিন পরই কোচের পদ ছাড়তে হয় ফের্নান্দো হিয়েরোকে। তার জায়গায় এসেছেন লুইস এনরিকে। বার্সেলোনার সাবেক কোচের সঙ্গে জাতীয় দলে কাজ করার রোমাঞ্চকে একপাশে সরিয়ে রেখে হঠাৎ করে অবসরের ঘোষণা দিলেন পিকে।

জাতীয় দলে ১০২ ম্যাচ খেলেছেন পিকে। শেষ ম্যাচটি ছিল রাশিয়ার বিপক্ষে। আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারে বেশ সফল বার্সার এই ডিফেন্ডার। ২০০৯ সালে স্পেনে অভিষেক হয় তার। পরের বছর পান বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হওয়ার স্বাদ। ২০১২ সালেও জেতেন ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপস।

Pique and Spain celebrate World Cup win

পারফরম্যান্স দিয়ে মুগ্ধ করলেও আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারে পিকের পথচলা মসৃণ ছিল না। কাতালানদের স্বাধীনতা নিয়ে কথা বলায় সমালোচিত হয়েছেন প্রায় সময়। অবসর নেওয়ায় এখন আর ওসব সমালোচনা নিয়ে মাথা ঘামাতে হবে না পিকেকে।

তবে স্পেনে দারুণ একটা সময় কাটানোর কথাই পিকে জানালেন বিদায়ী বক্তব্যে, ‘একটি করে ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপ ও বিশ্বকাপ জেতায় আমার সময়টা কেটেছে সত্যিই দারুণ। কিন্তু এই গল্প এখন শেষ। আমি এটা লুইস এনরিককে বলেছি।’

পিকের অবসরের ইঙ্গিত পাওয়া গিয়েছিল বিশ্বকাপের আগেই। রাশিয়ায় যাওয়ার আগে তিনি নিশ্চিত করেছিলেন, এটাই তার জাতীয় দলের সঙ্গে শেষ বড় টুর্নামেন্ট। সাবেক বার্সেলোনা সতীর্থ আন্দ্রেস ইনিয়েস্তার পথ ধরে এবার অবসরই নিয়ে ফেললেন পিকে। বিশ্বকাপের পর জাতীয় দলকে বিদায় জানান ইনিয়েস্তা।

*রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন*

সম্পর্কিত সংবাদ
Leave a reply
ডেস্ক রিপোর্ট