মোবাইল হ্যান্ডসেট সার্ভিসিং, ভোগান্তি

মোবাইল হ্যান্ডসেট সার্ভিসিং, ভোগান্তি

মোবাইল হ্যান্ড সেট সার্ভিসিং নিয়ে দুর্ভোগ পোহাতে হয় গ্রাহকদের। নামি-দামি ব্যান্ডের বহুল প্রচলিত হ্যান্ড সেট সার্ভিসিং নিয়ে, করতে হচ্ছে দীর্ঘ প্রতীক্ষা। আর এই অভিযোগ খোদ রাজধানীবাসীর।

এমনকি তিনমাস পর্যন্ত হ্যান্ড সেট সার্ভিস সেন্টারে রেখে দেয়া হয়েছে, এই অভিযোগ উত্তরা নিবাসী এক ব্যবহারকারী। পরে বাধ্য হয়ে সার্ভিসিং না করিয়েই হ্যান্ড সেট ফিরিয়ে আনা হয়। ব্যক্তিগতভাবে সারিয়ে নেয়া হয়েছিল, জে-২ সিরিজের সেই হ্যান্ডসেটটির “ডিসপ্লে” সমস্যা।

এমন অভিযোগ একটি নয়। বেসরকারি প্রতিষ্ঠানেতে কর্মরত দম্পতি জানিয়েছেন তাদের অসহায়ত্বের কথা। “ডিসপ্লে” সমস্যা সমাধানের জন্য মাসখানেকের বেশি ধরে সার্ভিস সেন্টারে রেখে দেয়া হলেও এখন পর্যন্ত মেলেনি সমাধানের দেখা। তার কাংখতি যন্ত্রাংশটি এখনও পাওয়া যায়নি এই কথাই বলা হচ্ছে বারংবার। অথচ এই ব্যান্ডের সেট বাজারে অন্যতম ব্যবহৃত।

জনসাধাবনের মধ্যে প্রশ্ন যেখানে, এসব হ্যান্ডসেট এতো বেশি চলছে, সেখানে সার্ভিসিং এর জন্য কেন এতো সময় লাগছে? বর্তমান যোগাযোগ ব্যবস্থায় মোবাইল হ্যান্ডসেটের গুরুত্ব অপরিসীম। সমগ্র পৃথিবী যেখানে ডিজিটালাইজেশনের মাধ্যমে এগিয়ে যাচ্ছে, সেখানে হ্যান্ডসেট সার্ভিসিং নিয়ে এমন ভোগান্তি পোহাতে হলে, তা আসলেই দুঃখজনক। অনেকেরই যোগাযোগের অন্যতম মাধ্যম মোবাইল ফোন। দীর্ঘদিন সেটা সার্ভিসিং এর অপেক্ষায় রেখে দেয়াও বিড়ম্বনাকর।

জনমনের ভাষ্য, যেখানে এসব হ্যান্ডসেট দেদারসে বিক্রি হচ্ছে, সেখানে গ্রাহক সেবাকে গুরুত্ব ও সম্মান দেখিয়ে অতিরিক্ত কিছু যন্ত্রাংশের ব্যবস্থা করা উচিত। শুধু তাই নয়, অন্তত তিনমাস সময় অনেক্ষা না করিয়ে দ্রুত সমাধানের ব্যবস্থা রাখলে, সাধরণ মানুষের উপকারে আসবে। তাছাড়াও, সে সব ব্যান্ডের উপর ব্যবহারকারীদের আস্থাও বাড়বে।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট