রাজশাহীকে হারিয়ে অবশেষে জয়ের দেখা পেল মাশরাফির কুমিল্লা

রাজশাহীকে হারিয়ে অবশেষে জয়ের দেখা পেল মাশরাফির কুমিল্লা

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ বিপিএলে অবশেষে জয়ের দেখা পেল মাশরাফি বিন মুর্তজার কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। রাজশাহী কিংসকে ৩২ রানে হারিয়েছে কুমিল্লা। ৬ ম্যাচে এটি কুমিল্লার প্রথম জয়।

শনিবার জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে টসে জয়লাভ করেন রাজশাহীর অধিনায়ক ড্যারেন স্যামি। তিনি প্রথমে কুমিল্লাকে ব্যাট করার আমন্ত্রণ জানান। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৫২ রান সংগ্রহ করে কুমিল্লা। জবাবে ১২০ রানে অলআউট হয় রাজশাহী।

বড় রানের লক্ষ্যে ব্যাটিং করতে নেমে জুনায়েদ সিদ্দিকী ও মমিনুলে ভালো শুরু করেছিল রাজশাহী। তানভীরের বলে বোল্ড হবার আগে ১০ রান করেন জুনায়েদ। রাজশাহীর রান তখন ২৭। পরের বলেই সাব্বিরকে ফিরিয়ে দিয়ে কিংসদের বড়সড় একটা ধাক্কা দেন তানভীর।

দলীয় ৪০ রানে মাত্র ৩ রান করে ফিরে যান উমর আকমল। এই আসরে এখন পর্যন্ত জ্বলেনি আকমলের ব্যাট। দলীয় ৬৬ রানে চতুর্থ উইকেট হারায় রাজশাহী। মাত্র ৯ বলে ৮ রান করে আউট হন নুরুল হাসান সোহান। দলীয় ৯১ রানে মমিনুলকে হারিয়ে খাদের কিনারে চলে যায় কিংসরা।

৫৩ রান করেন এই বামহাতি ব্যাটসম্যান। এরপর ড্যারেন সামি রান আউট হন কোনো রান না করেই। মেহেদী হাসান মিরাজ ও সামিত প্যাটেলও আজ কিছু করতে পারেননি। শেষমেষ ২০ ওভারে রান করে শেষ হয় রাজশাহীর ইনিংস।

এর আগে রাজশাহী কিংসের বিপক্ষে প্রথমে ব্যাটিং করে ১৫২ রান করেছে কুমিল্লা। এবারের আসরে কাঙ্ক্ষিত জয়ের দেখা না পাওয়ায় গত আসরের চ্যাম্পিয়ন কুমিল্লা ওপেনিং ব্যাটসম্যানে পরিবর্তন আনে। ব্যাট করতে নামেন খালিদ লতিফ ও নাজমুল হোসাইন শান্ত। তবে তাতেও কাজ হয়নি।

দলের পক্ষে সবোর্চ্চ ৪১ রান করেছেন নাজমুল ইসলাম শান্ত। এছাড়া ইমরুল কায়েস ৩৪, রায়ান টেন ডেসকাটে ২১ ও সোহেল তানভীর ১৫ রান করেন।

ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুতেই উইকেট হারায় কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। ওপেনার খালেদ লতিফকে আউট করেন ফরহাদ রেজা। সপ্তম ওভারে দ্বিতীয় উইকেট হারায় কুমিল্লা। মিরাজের বলে ১১ রানে বিদায় নেন আহমেদ শেহজাদ। পরের ওভারেই ড্যারেন স্যামির বলে মারতে গিয়ে ক্যাচ তুলে দেন ওপেনার নাজমুল হোসেন শান্ত। ৪১ রান করেন এই তরুণ ব্যাটসম্যান।

এরপর দারুণ খেলতে থাকা ইমরুল কায়েসও ফিরে যান। ২৫ বলে ৩৫ রান করেন ইমরুল। এরপর দলীয় ১১১ রানে ড্যারেন স্যামির বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দেন কুমিল্লা অধিনায়ক মাশরাফি। শেষ ৫ ওভারে ৪১ রান তোলেন ডেসকাটে ও তানভীর।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট