তেলের দাম কমলে কমাতে হবে বাস ভাড়া

তেলের দাম কমলে কমাতে হবে বাস ভাড়া

বিদ্যুৎ ও জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু জানিয়েছেন, জ্বালানি তেলের দাম কমালে বাসের ভাড়া কমাতে হবে। তিনি বলেছেন, ‘দ্বিতীয় দফায় তেলের দাম কমাতে সরকারের কাছে প্রস্তাব করা হয়েছে। আশা করছি এখানে একটি সমন্বয় হবে। আমরা চাচ্ছি, তেলের দাম কমানোর মাধ্যমে সরাসরি যানবাহনের ভাড়া কমাতে।’

রোববার দুপুরে রাজধানীর একটি হোটেলে ‘কৃষি বর্জ্য থেকে শক্তি উৎপাদন’ শীর্ষক সেমিনার শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাব এসব কথা বলেন প্রতিমন্ত্রী।

বিশ্ববাজারে জ্বালানি তেলের দাম কমার প্রেক্ষিতে গত ২৪ এপ্রিল বাংলাদেশেও তেলের দাম কমায় সরকার। তখন ডিজেলে লিটার প্রতি তিন টাকা এবং পেট্রল অকটেনে ১০ টাকা করে দাম কমায় সরকার। তবে এই সিদ্ধান্তের সুফল পায়নি সাধারণ মানুষ। সিদ্ধান্ত হলেও বাস ভাড়া কমায়নি মালিকরা। তবে দ্বিতীয় ধাপে তেলের দাম কমানোর আগে এই বিষয়টিতে নজর রাখা হবে বলে জানান জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী।

কবে নাগাদ তেলের দাম কমবে- এ বিষয়ে জানতে চাইলে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘যাচাই বাছাই চলছে…দ্বিতীয় ধাপের পর আরও এক ধাপে কমানো হবে তেলের দাম।’ এবার কোন তেলের দাম কত কমবে-জানতে চাইলে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘বিশ্বব্যাংকের পূর্বাভাস অনুযায়ী আগামী বছর তেলের দাম বাড়ার সম্ভাবনা আছে। আমাদের সেটাও নজরে রয়েছে। তাই এমন কোন কিছু আশা করা যাবে না যাতে কমানোর পর আবার তেলের দাম বাড়াতে হয়।’ তেলের দাম কমানোর পাশাপাশি রান্নার জন্য গ্যাসের সিলিন্ডারের দাম কমানোর উদ্যোগ আছে বলেও জানান প্রতিমন্ত্রী।

বলেন, ‘আগামী তিন বছরের মধ্যে দেশের ৭০ ভাগ এলাকাতে এলপিজি গ্যাস পৌঁছানোর পরিকল্পনা রয়েছে। এতে সিলিন্ডারের দাম কয়েক ধাপে কমবে। খুবই সাশ্রয়ই মূল্যে এই গ্যাস পাওয়া যাবে।’ অন্য এক প্রশ্নের জবাবে জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী বলেন, বিদ্যুৎ খাতে ভুর্তুকি দেওয়া হবে আরও দুই থেকে তিন বছর।

অন্য এক প্রশ্নের জবাবে সংকুচিত প্রাকৃতিক গ্যাস বা সিএনজির দাম আবারো বাড়তে পারে বলে ইঙ্গিত দেন প্রতিমন্ত্রী।

এর আগে সেমিনারে প্রতিমন্ত্রী বলেন, সরকার ৩০০ মেগাওয়াট সোলার প্যানেলের একটি প্রকল্প হাতে নিয়েছে। তবে নানা প্রতিবন্ধকতার কারণে সেটি বাস্তবায়ন করা যাচ্ছে না।

তিনি বলেন, ‘আমাদের লক্ষ্য ৬০ হাজার বিদ্যুৎ উৎপাদন করা। সরকার সে লক্ষ্যে কাজ করছে ।’ শহরে এবং গ্রামে বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় একটি মহাপরিকল্পনা তৈরির লক্ষ্যে সরকার কাজ করছে বলেও জানান প্রতিমন্ত্রী।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন আইএফসির কান্ট্রি ম্যানেজার ওয়েন্ডি জো ওয়ার্নার, ডেনমার্কের রাষ্ট্রদূত মাইকেল হেমনিটি উইনথার প্রমুখ।

সম্পর্কিত সংবাদ
নিজস্ব প্রতিবেদক