রংপুরকে ১২ রানে হারিয়ে দিল রাজশাহী

রংপুরকে ১২ রানে হারিয়ে দিল রাজশাহী

বিপিএলের আজকের দিনের প্রথম ম্যাচে মুখোমুখি হয় রংপুর রাইডার্স ও রাজশাহী কিংস। দুপুর দেড়টায় শুরু হয় ম্যাচটি। টস জিতেন রংপুর রাইডার্সের অধিনায়ক নাঈম ইসলাম। তিনি ব্যাট করতে আমন্ত্রণ জানান রাজশাহী কিংসের অধিনায়ক ড্যারেন স্যামিকে।

টস হেরে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৬২ রান সংগ্রহ করে রাজশাহী। ১৬৩ রানের জয়ের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৫০ রানের বেশি করতে পারেনি রংপুর রাইডার্স। ফলে ১২ রানের দারুণ এক জয় পায় রাজশাহী কিংস।

একটা সময় মনে হচ্ছিল, রংপুরের স্কোরটা ১৩০ এর বেশি হবে না। সেখান থেকে ড্যারেন স্যামি আর উমর আকমল মিলে স্কোরটা ১৬২ রানে নিয়ে যান। জবাবে ব্যাটিংয়ে নেমে মোহাম্মদ মিথুন যেভাবে ব্যাটিং করছিলেন তাতে রংপুরের জয়টাকেই সম্ভাব্য মনে হচ্ছিল।

বিপিএলের শেষ পর্বে প্রথমে ব্যাটিংয়ে নেমে প্রথম ওভারেই মমিনুলের উইকেট হারানো রাজশাহী জুনায়েদ ও সাব্বিরের ব্যাটে প্রতিরোধ গড়ে তোলে। জুটির পঞ্চাশ রান হতেই আরাফাত সানির বলে শেহজাদের দারুণ স্টাম্পিংয়ের শিকার হন সাব্বির রহমান। ২৪ বলে ৩১ রান করেন রাজশাহীর প্রাণভোমরা।

এরপর সামিত প্যাটেল ও জুনায়েদও ভালোই খেলছিলেন তবে দলীয় ৭৫ রানে জুনায়েদ ফিরে যাবার পরই বিপর্যয়ে পড়ে কিংসরা। লিয়াস ডসন তার একই ওভারে জুনায়েদ ও প্যাটেলকে ফিরিয়ে দেন।

১৪তম ওভারে মেহেদী হাসান মিরাজও ফিরে যান দলকে একা রেখে। মিরাজকে বোল্ড করেন মুক্তার আলী।

শেষে দিক ড্যারেন স্যামি ও উমর আকমল দারুণ চেষ্টা করেন রানের চাকাটা বাড়িতে নিতে। শেষ পর্যন্ত স্যামি-আকমলের ৭০ রানের জুটিতে ১৬২ রানের সম্মানজনক স্কোর দাঁড় করায় রাজশাহী।

মাত্র ১৮ বলে তিনটি চার ও চারটি বিশাল ছয়ে ৪৪ রান করেন স্যামি। ৩০ বলে ৩৩ রান করে অপরাজিত থাকেন উমর আকমল। রাইডার্সের লিয়াম ডসন দুটি উইকেট নেন।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট