বদলে যাচ্ছে ব্যাঙ্গালুরু টেস্টের উইকেট

বদলে যাচ্ছে ব্যাঙ্গালুরু টেস্টের উইকেট

পুনেতে প্রথম টেস্টে লজ্জার পরাজয়ের পর স্বাগতিক ভারত দ্বিতীয় টেস্ট জিততে মরিয়া। এজন্য তারা পিচের চেহারাই পাল্টে ফেলতে চলেছে।

ঘরের মাঠে বেশ কিছুদিন থেকেই নিজেদের অপরাজেয় প্রমাণ করে আসছে বিরাট কোহলির টিম ইন্ডিয়া। সাদা পোশাকে সর্বশেষ দুই সিরিজের পাঁচ ম্যাচের চারটিতেই জয় পেয়েছে কোহলি বাহিনী। আর আরেকটা ড্র হয়েছে।

তবে উড়তে থাকা ভারতকে একেবারে মাটিতে টেনে নামিয়েছে স্টিফেন স্মিথের অস্ট্রেলিয়া দল। সফরকারী অস্ট্রেলিয়াকে পুনে টেস্টে ঘায়েল করতে স্পিনিং উইকেট বানিয়েছিলো ভারত।

কিন্তু শেষ পর্যন্ত নিজেদের পাতা ফাঁদে নিজেদেরকেই পড়তে হয়েছে কোহলি বাহিনীকে। অজি  বাঁ-হাতি স্পিনার স্টিভ ও’কেফির স্পিন ঘুর্ণিতে বিধ্বস্ত হয়েছে স্বাগতিক দল। ও’কেফি একাই শিকার করেছেন ১২ টি উইকেট।

আর এরই সাথে টানা ১৯ ম্যাচ পর হারের মুখ দেখলো ভারত। সুতরাং দ্বিতীয় টেস্টের পিচ নিয়ে যে বাড়তি চিন্তা থাকছে ভারতের সেটি বলাই বাহুল্য।

জানা গেছে আগামী ৪ঠা মার্চ হায়দ্রাবাদে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া দ্বিতীয় টেস্টের চেহারা অনেকটা পাল্টে ফেলা হচ্ছে। এবার পিচ করা হবে অনেকটা শক্ত।

ব্যাঙ্গালুরুর এন চিন্নাস্বামী স্টেডিয়ামের পিচ কিউরেটর কে শ্রীরাম জানিয়েছেন পাঁচদিনের খেলার কথা ভেবেই উইকেট তৈরি করা হচ্ছে হায়দ্রাবাদের। শ্রীরাম বলেন, ‘ব্যাঙ্গালুরুর উইকেটে আগের মতোই হবে। হার্ড, বাউন্সে ভরা। পুনের মতো তিন দিনে টেস্ট শেষ হবে বলে মনে হয় না। পাঁচ দিনের খেলার কথা ভেবেই করা হচ্ছে এই উইকেট। কোনো দিনই খারাপ উইকেট হয় নি। এবারও হবে না। কোনো দল খুব খারাপ পারফর্মেন্স না করলে খেলা পাঁচ দিনেই গড়াবে।’

কোহলিদের টার্নিং উইকেট দেয়ার পক্ষে নন শ্রীরাম। এই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আামাদের ছেলেরা স্পোর্টিং উইকেটেই ভাল খেলবে। তাই ওদের স্পোর্টিং উইকেটই দেওয়া উচিত। এই দলকে আর কখনও যেন টার্নিং উইকেট দেওয়ার ভুল না করা হয়। রাতারাতি টার্নিং উইকেট বানিয়ে দিয়ে কী হল দেখলেন তো। আর বেঙ্গালুরুর পিচকেও যদি এ ভাবে টার্নার বানাতে যাওয়া হয়, তা হলে ফের ধাক্কা খেতে হবে।’

তবে উইকেট নিয়ে ভারতীয়দের মধ্যে দুশ্চিন্তা কাজ করলেও বিষয়টি নিয়ে ভাবছেন না অস্ট্রেলিয়া দলের কোচ ড্যারেন লেহম্যান। প্রথম টেস্টে দুর্দান্ত জয়ের সাংবাদিকদের অজি কোচ বলেছেন, ‘পরের টেস্টে আমাদের কেমন উইকেট দেয়া হবে, তা নিয়ে ভাবছি না। এমন ঘূর্ণি উইকেটে যদি আমরা ভারতকে হারাতে পারি, তাহলে অন্য যে কোনো উইকেটেও পারব।’

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট