চ্যাম্পিয়নদের মাটিতে পাকিস্তানের সিরিজ জয়

চ্যাম্পিয়নদের মাটিতে পাকিস্তানের সিরিজ জয়

প্রথম দুই ম্যাচ জিতে সিরিজে এগিয়ে গিয়েছিল পাকিস্তান। তৃতীয় ম্যাচ জিতে ঘুরে দাঁড়ায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। তবে ত্রিনিদাদে শেষ টি-২০ ম্যাচে পাকিস্তানের কাছে পাত্তাই পেল না স্বাগতিক ওয়েস্ট ইন্ডিজ। তরুণ ফাস্ট বোলার হাসান আলীর দুরন্ত বোলিংয়ে ক্যারিয়ানদের ৭ উইকেটে হারিয়ে চার ম্যাচ সিরিজ ৩-১ ব্যবধানে জিতে নিয়েছে পাকিস্তান। ৪ ওভার বল করে মাত্র ১২ রান দিয়ে ২ উইকেট নেন হাসান।

টস জিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ব্যাটিংয়ে পাঠিয়েছিল পাকিস্তান। আগের ম্যাচে ৪৫ বলে ৯১ রান করা এভিন লুইসকে এদিন ঝড় তোলার আগেই বিদায় করেন ইমাদ ওয়াসিম। ৮ বলে ৭ রান করে বাঁহাতি স্পিনারের বলে হাসান আলীকে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন ক্যারিবীয় ওপেনার।

এরপর পাকিস্তানের বোলারদের তোপে পড়ে একটা পর্যায়ে ৮৩ রানেই ৭ উইকেট হারিয়ে একশ’র আগেই অলআউট হওয়ার শঙ্কায় পড়ে যায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। তবে অষ্টম উইকেটে সুনীল নারিনের সঙ্গে অধিনায়ক কার্লোস ব্রাফেটের ৩৮ রানের জুটিতে শেষ পর্যন্ত ৮ উইকেটে ১২৪ রান করতে পারে স্বাগতিকরা। তাদের ইনিংসে ৬৬ বলই ছিল ডট! যার মধ্যে ৮টি উইকেট।

২৪ বলে ২টি করে চার ও ছক্কায় ৩৭ রানে অপরাজিত ছিলেন ব্রাফেট। সর্বোচ্চ ৪১ রান অবশ্য চাঁদউইক ওয়ালটনের। এ ছাড়া দুই অঙ্ক ছুঁয়েছেন কেবল মারলন স্যামুয়েলস (২২)।

৪ ওভারে মাত্র ১২ রান দিয়ে দুটি মেডেনসহ ২ উইকেট নিয়ে পাকিস্তানের সেরা বোলার হাসান আলী। নিজের টানা দুই ওভারে কোনো রান না দিয়ে উইকেট দুটি নেন ২৩ বছর বয়সি এই পেসার। লেগ স্পিনার শাদাব খানও ২ উইকেট নেন ১৬ রানে।

জবাবে আহমেদ শেহজাদের ৫৩ (৪৫ বলে ৬ চার ও এক ছক্কা) ও বাবর আজমের ৩৮ রানের সুবাদে ১২৫ রানের লক্ষ্যটা ৬ বল বাকি থাকতেই পেরিয়ে যায় পাকিস্তান। কামরান আকমল করেন ২০ রান।

ম্যাচ সেরার পুরস্কার জিতেছেন হাসান আলী। চার ম্যাচে ১০ উইকেট নিয়ে সিরিজ সেরা হয়েছেন শাদাব খান।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট