এবার আইপিএল উদ্বোধনী অনুষ্ঠান আট ভেন্যুতে

এবার আইপিএল উদ্বোধনী অনুষ্ঠান আট ভেন্যুতে

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) দশম আসরের ঘণ্টা বাজতে শুরু করেছে। আগামী ৫ এপ্রিল থেকে শুরু হতে যাচ্ছে এই মহারণ। চলবে দেড় মাসের উপরে। এ বার এই টুর্নামেন্টে আটটি উদ্বোধনী অনুষ্ঠান হবে। এতদিন আইপিএল-এর শুরুতে একটি উদ্বোধনী অনুষ্ঠান হতো। এবার সেটা বদলে আট ভেন্যুতে আটটি অনুষ্ঠান করা হবে।

যে ভেন্যুতে যেদিন প্রথম ম্যাচ হবে সেদিন সেখানে হবে অনুষ্ঠান। সোমবার আইপিএল চেয়ারম্যান রাজীব শুক্লা এই কথা জানিয়েছেন। এটা যে তারই পরিকল্পনা সেটা সরাসরি না বললেও সর্বসম্মতি ক্রমে যে সেই পরিকল্পনা গৃহীত হয়েছে সেটাও তিনি জানাতে ভোলেননি। তিনি বলেন, ‘যদি বলি এটা শুধু আমার পরিকল্পনা তা হলে ঠিক হবে না। সবাই মিলে বসে আমরা এটা সিদ্ধান্ত নিয়েছি যে সব হোস্ট ভেন্যুতে একটি করে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান হবে। যাতে সব শহরের ক্রিকেটপ্রেমীরাই এই অনুষ্ঠানের আনন্দ নিতে পারেন।’

প্রত্যেকটি অনুষ্ঠানকে সাজানো হয়েছে সেই রাজ্যের শিল্প ভাবনাকে মাথায় রেখেই। সঙ্গে থাকবে আগের ন’টি আইপিএলের নির্বাচিত বেশ কিছু অংশ। সব অনুষ্ঠানের মূল আকর্ষণ অবশ্যই বলিউডের চেনা মুখের পারফরম্যান্স। নানা রকম গড়াপেটায় ধাক্কা খেয়েছিল আইপিএলের চাহিদা। কিন্তু সেটা মানতে নারাজ শুক্লা। হিসেব ঘেটে তিনি জানিয়েছেন শুধু নবম আইপিএলে ভারতে দর্শকের সংখ্যা ৩৯কোটি ৬০ লাখ। অষ্টম আইপিএলে সেই সংখ্যা ছিল ১৯ কোটি। যেখান থেকে তিনি প্রমাণ করতে চেয়েছেন এটাই সাফল্যের একটা ছোট্ট নিদর্শন।

গত বছরের তুলনা টেনে আইপিএলের চেয়ারম্যানের মত, গত বছরের আইপিএল ছিল বিরাট কোহলির। সঙ্গে যুজবেন্দ্র চাহাল, মুস্তাফিজুর রহমানদের মতো নুতন মুখদের উঠে আসার। বিরাটের প্রশংসায় পঞ্চমুখ হতে দেখা গেল রাজীব শুক্লাকে। তার মতে, গত বছর আইপিএলের মুখ হয়ে উঠেছিলেন বিরাট। সঙ্গে গত বছরই আইপিএলের ভেন্যু হিসেবে উদ্বোধন হয়েছিল কানপুর। শুক্লার নিজের রাজ্য। এ বার নতুন পদক্ষেপ সব ভেন্যুতে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট