আফজাল স্মৃতিকাতর

আফজাল স্মৃতিকাতর

অভিনেতা ও নির্মাতা আফজাল হোসেননন্দিত অভিনেতা ও নির্মাতা আফজাল হোসেনের জীবনের শুরুর সময়টা কেটেছে সাতক্ষীরা। ক্লাস টেন পর্যন্ত পড়েছেন সাতক্ষীরা জেলার কালিগঞ্জ উপজেলার ঐতিহ্যবাহী নলতা হাই স্কুলে। এই স্কুলের শতবর্ষ পূর্তি উপলক্ষে দুই দিনব্যাপী অনুষ্ঠান শুরু হয় বৃহস্পতিবার। স্কুলের সাবেক শিক্ষার্থী হিসেবে সেখানে ছুটে গেছেন আফজাল হোসেন। শতবর্ষ পূর্তির অনুষ্ঠানে অংশ নিতে গিয়ে তাঁর সঙ্গে দেখা হয়েছে ৪৭ বছর আগের সব বন্ধুর। এত বছর পর স্কুল বন্ধুদের কাছে পেয়ে স্মৃতিকাতর তিনি।

২০ বছর আগে শেষবারের মতো নিজের স্কুলে গিয়েছিলেন আফজাল হোসেন। তখন বন্ধুদের সঙ্গে তাঁর দেখা হওয়ার সুযোগ হয়নি। এবার শতবর্ষপূর্তি অনুষ্ঠানে গেলে সমসাময়িকদের সঙ্গে যেমন দেখা হয়েছে, তেমনি অনেক আগের ব্যাচের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে আড্ডা দেওয়া হয়েছে।

আফজাল হোসেন বলেন, ‘স্কুলে আসলাম প্রায় ২০ বছর পর। আর বন্ধুদের সঙ্গে দেখা তো ৪৭ বছর পর। একজন মানুষের জীবনে এমন অভিজ্ঞতা খুব কমই হয়। আমি চিন্তাই করতে পারছি না। প্রতিটা মুহূর্ত আমার কাছে একেবারে অন্য রকম মনে হচ্ছে। বন্ধুদের সঙ্গে দেখা, ক্লাস, আড্ডার জায়গাগুলোর কথা মনে করতেই রোমাঞ্চিত হচ্ছি।’

দুই দিনের অনুষ্ঠান শেষে আজ শনিবার ঢাকায় ফেরার কথা আফজাল হোসেনের। বললেন, ‘১০০ বছর একজন মানুষের জীবনে একবারই আসে কি না সন্দেহ। খুব বিরল ঘটনা। সেখানে আমার নিজের হিসাব হচ্ছে ৫০ বছর। আমি বলতে চাচ্ছি, এই স্কুলের সঙ্গে আমার সম্পর্ক ৫০ বছর। আমি আসলে অল্প কথায় অনুভূতি প্রকাশ করতে পারছি না। একবারেই অদ্ভুত অভিজ্ঞতা। আমার এই অনুভূতি নিয়ে একটা বড় লেখা লিখব।’

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট