তিস্তা চুক্তির সমাধান শিগগিরই: মোদি

তিস্তা চুক্তির সমাধান শিগগিরই: মোদি

 

তিস্তা চুক্তির বিষয়ে শিগগিরই একটি সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে আজ শনিবার বৈঠক শেষে এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনে মোদি এ কথা বলেন।

এ সময় মোদি বলেন, বাংলাদেশ নিয়ে আমার মনে যে অনুভূতি, আমি মনে করি একই উষ্ণ অনুভূতি রয়েছে পশ্চিম বাংলা সরকারের মমতা ব্যানার্জির মনেও।

বিভিন্ন চুক্তি বিষয়ে ধারণা দিয়ে নরেন্দ্র মোদি বলেন, ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের সম্পর্ক সর্বদাই উষ্ণ। আর সে কারণেই আশা করছি তিস্তা বিষয়ে আমি, মমতা এবং আমাদের সম্মানিত অতিথি শেখ হাসিনা দ্রুত একটি সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে পারবে।

এ সময় সামরিক সহযোগিতা, সীমান্ত সমস্যা সমাধান এবং অর্থনৈতিক চুক্তির বিষয়ে আলোচনা করেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী। বাংলাদেশের সঙ্গে ভারত আরো দৃঢ় সম্পর্কে গড়ে তুলবে বলেও ঘোষণা দেন মোদি।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সম্মানে শনিবার আয়োজিত মধ্যাহ্ন ভোজে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় যোগ দিয়েছেন। এজন্য মোদি মমতা বন্দোপাধ্যায়কে ধন্যবাদ জানান তার আমন্ত্রণ গ্রহণ করে মধ্যাহ্ন ভোজে যোগ দিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘আমি বিশ্বাস করি, আমার সরকার ও শেখ হাসিনার সরকার তিস্তার পানি বন্টন করতে চায় এবং আমরা তা করবো।

তিনি আরও বলেন, শেখ মুজিব ভারতের প্রকৃত বন্ধু। বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত জীবনী হিন্দি অনুবাদ হওয়ায় কৃতজ্ঞতা জানান। বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তিতে ২০২১ সালে ভারত-বাংলাদেশ যৌথ প্রযোজনায় প্রামান্য চিত্র তৈরি হবে। বাংলাদেশ ভারত এখন সোনালি অধ্যায় অতিক্রম করছে।

এর আগে শনিবার দুপুরে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে একান্ত বৈঠক করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এক ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে দুই নেতা বৈঠক করেন। বৈঠকের পর ২২টি চুক্তি ও ৪টি সমঝোতা স্মারক সই হয়েছে।

সম্পর্কিত সংবাদ
নিজস্ব প্রতিবেদক