বিকেলে সংবাদ সম্মেলনে আসছেন খালেদা জিয়া

বিকেলে সংবাদ সম্মেলনে আসছেন খালেদা জিয়া

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারত সফর এবং চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক সইয়ের বিষয়ে বুধবার বিকেলে সংবাদ সম্মেলন ডেকেছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া।

বিকেলে সাড়ে ৪টায় চেয়ারপারসনের গুলশানের রাজনৈতিক কার্যালয়ে এ সংবাদ সম্মেলন হবে বলে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে। মঙ্গলবার রাতে বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস সচিব মারুফ কামাল খান স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য ও ভারতের সঙ্গে চুক্তি-সমঝোতা স্মারক বিষয়ে আনুষ্ঠানিক প্রতিক্রিয়া জানাবেন খালেদা জিয়া।

এর আগে রাতে গুলশান কার্যালয়ে দলের স্থায়ী কমিটির কয়েকজন নেতার সঙ্গে বৈঠক করেন খালেদা জিয়া। বৈঠকে বুধবার বিকেল সাড়ে ৪টায় বিএনপি চেয়ারপারসনের রসংবাদ সম্মেলন করার সিদ্ধান্ত হয়।

গত সোমবার রাতে দলের স্থায়ী কমিটির বৈঠকে বৃহস্পতিবার বিকেলে সংবাদ সম্মেলন করার ব্যাপারে নীতিগত সিদ্ধান্ত হয়েছিল বলে জানায় বৈঠক সূত্র। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভারত সফর এবং চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক সই নিয়ে মঙ্গলবার বিকেলে সংবাদ সম্মেলন করেন। এজন্যই বিলম্ব বুধবার বিকেলে খালেদা জিয়ার সংবাদ সম্মেলন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিএনপি।

স্থায়ী কমিটির বৈঠকে ভারতের সঙ্গে সরকারের প্রতিরক্ষা চুক্তি ও সমঝাতা স্মারক সইয়ের নিন্দা জানানো হয়। বিএনপির মতে, ভারতের সঙ্গে সম্পাদিত চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক দেশের ‘স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ববিরোধী’।

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ ভারতকে খুশি করে আরও পাঁচ বছর রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় থাকতে এসব চুক্তি করেছে বলে দাবি করছে দলটি। এসব চুক্তিতে দেশের কোনো লাভ হয়নি; বরং দেশের অনেক ক্ষতি হয়েছে বলে মনে করছেন তারা। ইতোমধ্যে এসব চুক্তির বিরুদ্ধে সারাদেশে জনমত গড়ে তুলতে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া দলের নেতাকর্মীদের প্রতি নির্দেশও দিয়েছেন বলে দলের নেতারা জানায়।

খালেদা জিয়ার সভাপতিত্বে সোমবার রাতে স্থায়ী কমিটির বৈঠকে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, লে. জেনারেল (অব.) মাহবুবুর রহমান, মির্জাআব্বাস, আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী প্রমুখ।

২০ দলীয় জোটের বৈঠক: এদিকে, বুধবার রাত সাড়ে ৮টায় চেয়ারপারসনের গুলশান কার্যালয়ে ২০ দলীয় জোটের শীর্ষ নেতৃবৃন্দের সঙ্গে বৈঠক করবেন খালেদা জিয়া। অনুষ্ঠেয় বৈঠকে ভারতের সঙ্গে সরকারের সম্পাদিত চুক্তি ও সমঝোতা স্মারকসহ বিভিন্ন বিষয় ছাড়াও জোটের ভবিষ্যৎ করণীয় নিয়ে আলোচনা হবে বলে জানা গেছে।

এ প্রসঙ্গে জোটের একাধিক নেতার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তারা বলেন, জোটের বৈঠকের আমন্ত্রণ পেয়েছি।

বৈঠকের এজেন্ডা সম্পর্কে জোটের এক নেতা বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফর ও ভারতের সঙ্গে চুক্তির বিষয় নিয়ে আলোচনা হবে এটা স্বাভাবিক।’ জোটের বৈঠকের পর বিএনপি চেয়ারপারসন অনুষ্ঠানিক প্রতিক্রিয়া জানাবেন বলেও তারা জানান।

সম্পর্কিত সংবাদ
নিজস্ব প্রতিবেদক