পহেলা রমজান থেকে মাংস বিক্রি বন্ধ বন্ধের হুমকি

পহেলা রমজান থেকে মাংস বিক্রি বন্ধ বন্ধের হুমকি

সাধারণ মানুষ দাম বেশি হওয়ায় গরু ও খাসির মাংস খাওয়া ছেড়ে দিয়েছেন। ফলে মাংস বিক্রি কমে গেছে। বাংলাদেশে অর্ধেকের বেশি মাংসের দোকান বন্ধ হয়ে গেছে। আজ রোববার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে মাংস ব্যবসায়ী সমিতির সংবাদ সম্মেলনে এমনসব কথা বলেন ব্যবসায়ীরা।

এছাড়া খাজনা কমানো, চাঁদাবাজি বন্ধ করা, চামড়া বিক্রির ব্যবস্থা করা, ডিএসসিসিতে স্থায়ী পশুর হাট তৈরি, মানসম্মত একাধিক কসাইখানা তৈরির বিষয়ে আগামী ১৫ দিনের মধ্যে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা না নিলে রমজানের প্রথম দিন থেকে সারা দেশে কর্মবিরতিতে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন মাংস ব্যবসায়ীরা।

ঢাকা মেট্রোপলিটন মাংস ব্যবসায়ী সমিতির মহাসচিব রবিউল আলম বলেন, দাবি পূরণ না হলে তাদের ঘোষিত কর্মবিরতি ধর্মঘটে রূপ নিতে পারে।

সংবাদ সম্মেলন বিভিন্ন ধরনের অভিযোগ, সমস্যা ও দাবি তুলে ধরেন ঢাকা মেট্রোপলিটন মাংস ব্যবসায়ী সমিতির মহাসচিব।

তিনি বলেন, পরিস্থিতি এমন পর্যায়ে গেছে যে, আন্দোলনের বিকল্প নেই।

উল্লেখ, গরুর মাংসের ব্যবসা নিয়ে ঢাকা মেট্রোপলিটন মাংস ব্যবসায়ী সমিতির সঙ্গে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) ও ইজারাদারদের দ্বন্দ্ব চলছে। এই দ্বন্দ্বের জেরে কর্মবিরতিতে যাওয়ার হুমকি দিল মাংস ব্যবসায়ী সমিতি। এর আগে গত ১৩ থেকে ১৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ছয় দিনের কর্মবিরতি পালন করেছিলেন মাংস ব্যবসায়ীরা।

সম্পর্কিত সংবাদ
নিজস্ব প্রতিবেদক