রাশিয়ার কাছ থেকে পাকিস্তান পেলো ৪ গানশিপ: পাক-রুশ সম্পর্ক আরো বাড়বে

রাশিয়ার কাছ থেকে পাকিস্তান পেলো ৪ গানশিপ: পাক-রুশ সম্পর্ক আরো বাড়বে

পাকিস্তান রাশিয়ার কাছ থেকে হামালার কাজে ব্যবহৃত চারটি অত্যাধুনিক হেলিকপ্টার পেয়েছে। হেলিকপ্টার কেনার এ চুক্তি থেকে ধারণা করা হচ্ছে শীতল যুদ্ধের বৈরী সম্পর্কের দেশ দু’টির মধ্যে বৃহত্তর সামরিক সম্পর্ক বাড়ছে। ভবিষ্যতে এ সম্পর্ক আরো জোরালো হয়ে উঠবে বলেও ধারণা করছেন বিশ্লেষকরা।

রাশিয়া পাকিস্তানকে মিল মিল-৩৫এম গানশিপ হেলিকপ্টার সরবরাহ করেছে। চলতি বছরে রাশিয়ায় অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক সামরিক-প্রযুক্তি ফোরাম বা আর্মি ২০১৭ প্রদর্শনীতে এ চুক্তি চূড়ান্ত করা হয়েছিল বলে জানিয়েছে পাকিস্তানের প্রতিরক্ষা রফতানি উন্নয়ন সংস্থা বা ডিইপিও।

পাকিস্তানের বিরুদ্ধে আরোপিত অস্ত্র নিষেধাজ্ঞা রাশিয়া প্রত্যাহার করে নেয়ার তিন বছর পর এ চুক্তি করা হয়। সোভিয়েত-আফগান যুদ্ধের সময় থেকে এ নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছিল।

গত কয়েক বছর ধরে পাক-মার্কিন সম্পর্কে গভীর টানাপড়েনের সৃষ্টি হয়েছে। কোনো কোনো সন্ত্রাসীগোষ্ঠীর প্রতি পাকিস্তানের সমর্থনকে কেন্দ্র করে ইসলামাবাদকে দেয়া সামরিক সহযোগিতা বন্ধ করে দেয়ার হুমকি দিয়েছে ওয়াশিংটন। এ হুমকি একাধিকাবার দেয়া হয়েছে। এতে পুরানো মার্কিন মিত্র হিসেবে পরিচিত দেশটিকে মস্কোর দিকে ঝুঁকতে বাধ্য করা হয়েছে।

অন্যান্য প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার মধ্যে রাশিয়ার কাছ থেকে এস-৪০০ কেনার আগ্রহ দেখিয়েছে পাকিস্তান। এতে রুশ প্রযুক্তির প্রতি পাকিস্তানের ক্রমবর্ধমান আগ্রহই স্পষ্ট হয়ে উঠেছে।

এ ছাড়া, আমেরিকার সঙ্গে ভারতের চলমান সামরিক সহযোগিতাও পাকিস্তানকে মস্কোর দিকে ঠেলে দেয়ার অন্যতম কারণ হয়ে উঠেছে। পাকিস্তানের চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দেশ ভারত ২২টি ড্রোন কেনার জন্য আমেরিকার সঙ্গে দুইশ’ কোটি ডলারের চুক্তি করেছে। এ ছাড়া, ভারতের কাছে সি১৩০জে সুপার হারকিউলিস এবং সি-১৭ গ্লোবমাস্টার পরিবহন বিমানসহ বোয়িং পি-৮ গোয়েন্দা বিমান বিক্রি করতে সম্মত হয়েছে আমেরিকা।

এতে ভারতে রাশিয়ার বাজার হ্রাস পেয়েছে এবং সামরিক সহযোগী হিসেবে পাকিস্তানের অবস্থান দেশটির কাছে জোরালো হয়ে উঠেছে। সন্ত্রাসীদেরকে আশ্রয় দেয়ার অভিযোগ পাকিস্তানের বিরুদ্ধে তোলায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের আমলে পাক-রুশ সহযোগিতা আরো দ্রুততর হয়ে উঠবে।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট