‘৭১-এর অভিজ্ঞতা থেকেই রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিচ্ছি’

‘৭১-এর অভিজ্ঞতা থেকেই রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিচ্ছি’

বাংলাদেশ ১৬ কোটি মানুষের ঘনবসতিপূর্ণ দেশ। আমাদের হৃদয়, মন আছে। রোহিঙ্গাদের সমস্যা দেখে আমাদের মনে একাত্তরের স্মৃতি ভেসে উঠে। সে সময় আমাদের মা বোন ভারতে গিয়ে আশ্রয় নিয়েছিল। সুতরাং আমাদের পূর্ব অভিজ্ঞতা আলোকেই মানবিক দিক বিবেচনা করে রোহিঙ্গাদের আমরা বাংলাদেশে আশ্রয় দিচ্ছি।

আজ শনিবার রাজধানীর ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার ইন্সটিটিউট মিলনায়তনে এক প্রকাশনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ এসব কথা বলেন।

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের ‘বিলম্বে হলেও প্রধানমন্ত্রীর বোধদয় হয়েছে’ এমন বক্তব্যের জবাবে তিনি বলেন, ‘বিজিবি যে মায়ানমারের গৃহহারা মানুষকে আশ্রয় দিয়েছে এ নির্দেশ তো প্রধানমন্ত্রীর। তার নির্দেশেই তো আইন শৃঙ্খলারক্ষাকারী বাহিনী কাজ করছে।’

গণহত্যা বন্ধ করতে আবারও মায়ানমার সরকারের প্রতি আাহবান জানিয়ে তোফায়েল আহমেদ বলেন, ‘ আমরা মনে করি অনতি বিলম্বে সেখানে গণহত্যা বন্ধ করা উচিত।’

তিনি আরো বলেন, ‘লন্ডনের একটি নাম করা টেলিভিশন ‘মাদার অব হিউমেনিটি’ খেতাবে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ভূষিত করে নিউজ প্রচার করেছে। কিন্তু কিছু মানুষ তার বিরুদ্ধে কথা বলছে।’

বিএনপির উদ্দেশে তোফায়েল আহমেদ বলেন, ‘কোথায় খালেদা জিয়া? আপনারা বলেন প্রধানমন্ত্রীর বোধদয় হয়েছে? প্রধানমন্ত্রী কি না করেছেন? মানুষ প্রধানমন্ত্রীকে সেখানে পেয়ে আবেগাপ্লুত। যে দলের নেত্রীরই খোঁজ নেই তাদের বড় কথা বলা উচিত না।’

সংস্কৃতি সচিব ইব্রাহিম খান অনুষ্ঠানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক, অর্থপ্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান।

মুক্তধারা থেকে প্রকাশিত ইব্রাহিম হোসেনের চারটি বই হল-বঙ্গবন্ধুর মর্মকথা ২ খণ্ড, আর্থ সামাজিক উন্নয়নে জ্বালানি খাতের ভূমিকা: প্রেক্ষিত বাংলাদেশ, সমসাময়িক সাধারণ জ্ঞান, চলমান অর্থনৈতিক বৈশিষ্ট্য।

সম্পর্কিত সংবাদ
নিজস্ব প্রতিবেদক