এই তিন যোগেই ঘাড়ে ব্যাথা থেকে মিলবে মুক্তি

এই তিন যোগেই ঘাড়ে ব্যাথা থেকে মিলবে মুক্তি

কাজের অত্যাধিক চাপ ও টেনশনে বিপর্যস্ত জেন ওয়াই৷ ডাক্তার, ওষুধ কিংবা টোটকা কোনও কিছুতেই এই সমস্যা থেকে মুক্তি মিলছে না৷ চাহিদা বাড়ছে যোগার৷ কারণ এই যোগাই আপনাকে শরীর, স্বাস্থ্য কিংবা শারিরীক ক্লান্তি থেকে রেহাই দেবে এবং আপনাকে সুস্থ রাখবে৷ দীর্ঘক্ষণ কম্পিউটারের সামনে বসে নিশ্চয়ই ঘাড় ব্যাথার সমস্যায় ভোগেন আপনি৷ কিন্তু কিভাবে এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাবেন? ছয়টি খুব সহজ যোগা করলেই এই সমস্যা থেকে সহজেই মুক্তি পাওয়া সম্ভব৷

প্রায় পাঁচ হাজার বছরের এই পুরোনো যোগা পদ্ধতিকতে খুব সহজেই এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাবেন৷ কি সেই পদ্ধতিগুলি?

১) বালাসানা অথবা চাইল্ড পোজ– আপনার গোঁড়ালির উপর ভর দিয়ে বসুন৷ এরপর সামনের দিকে একটু ঝুঁকে বসুন৷ তারপর আসতে আসতে আপনার কপাল মাটিতে ঠেকিয়ে রাখুন৷ এরপর ধীরে ধীরে আপনার বুক উরুতে স্পর্শ করার চেষ্টা করুন৷ সেই পজিশনেই কিছুক্ষণ থাকুন৷ এরপর আসতে আসতে সোজা হয়ে উঠে বসুন৷

এতে আপনার নার্ভের সিস্টেম কিছুক্ষণের জন্য শান্ত হবে৷ ঘাড়েরও বিশ্রাম হবে৷ তবে, আপনার পিঠে কিংবা হাঁটুতে যদি কোনও সমস্যা থাকে তাহলে ভুলেও এই যোগা করবেন না৷

২) নটরাজসনা বা রিসাইকেলিং ট্যুইস্ট– মাটিতে চিৎ হয়ে শুয়ে দুদিকে আপনার হাত প্রসারিত করুন৷ হাঁটু ভাঁজ করে আপনার গোঁড়ালি পশ্চাৎদেশের সঙ্গে স্পর্শ করুন৷ এরপর আপনার বাঁদিকের হাঁটুটা বাঁদিকে সরান যতক্ষণ অবধি মাটিতে স্পর্শ করাতে পারবেন৷ অপরদিকে আপনার মাথা ডানদিকে সরাতে থাকুন৷ সেই সময় ডান হাতের তালুর দিকে তাকিয়ে থাকুন৷ সেই সময় কাঁধ অবশ্যই মাটিতে ছুঁয়ে থাকবে৷

চিন্তামুক্ত হতে এই যোগা অবশ্যই করুন৷ গর্ভবতী মহিলারা অবশ্যই এই যোগা এড়িয়ে চলুন৷

৩) মারজারিয়াসনা বা ক্যাট স্ট্রেচ- টেবিলের মতন করে মাটিতে আপনার হাত এবং পা ছড়িয়ে বসুন চারদিকে৷ খেয়াল রাখুন, আপনার দুটি পা এবং হাতের মধ্যে যাতে দূরত্ব থাকে৷ এরপর আসতে প্রশ্বাস নিতে নিতে পিছনের দিকে মাথা হেলাতে থাকুন এবং আপনার পেট মাটিতে স্পর্শ করান৷ এই অবস্থায় একটা লম্বা শ্বাস নিন৷ এরপর মাথাটা সামনের দিকে নিয়ে মাটি থেকে পেটটা তুলুন৷ আবার সেই আগের পজিশনে ফিরে আসুন৷

পরপর পাঁচ ছয়বার এই যোগা করলে আপনি সহজেই স্ট্রেস থেকে মুক্তি পাবেন৷ কবজি এবং কাঁধ থেকে চাপ মুক্ত হবে৷ রক্ত সঞ্চালনও আরও উন্নত হবে৷ তবে, পিঠে কিংবা ঘাড়ে যদি কোনও সমস্যা থাকে তবে এই যোগা করবেন না৷য

এই সমস্ত যোগাগুলি অবশ্যই ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে তবেই করবেন৷

 

 

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট