শিক্ষা দিবস আজ

শিক্ষা দিবস আজ

আজ মহান শিক্ষা দিবস। ১৯৬২ সালের এই দিনে শরীফ শিক্ষা কমিশনের সাম্প্রদায়িক, বহু বিভক্ত আর বাণিজ্যিক উদ্দেশ্য প্রণোদিত শিক্ষা রিপোর্ট প্রত্যখ্যান ও বাতিলের দাবিতে আন্দোলন গড়ে তুলেছিল তৎকালীন ছাত্র সমাজ। ছাত্র সমাজের আন্দোলনে আইয়ুব খানের সামরিক সরকার বাধ্য হয়েছিল শরীফ শিক্ষা রিপোর্ট বাতিল করতে।

তৎকালীন স্বৈরশাসক আইয়ুব খান ক্ষমতা দখলের মাত্র ২ মাস পরে ১৯৫৮ সালের ৩০ ডিসেম্বর একটি শিক্ষা কমিশন গঠন করেন। ওই কমিশন ১৯৫৯ সালে শরীফ শিক্ষা রিপোর্ট প্রণয়ণ করে।

২৭ অধ্যায়ে বিভক্ত ওই রিপোর্টে আইয়ুব শাহীর ধর্মান্ধ, রক্ষণশীল, সা¤্রাজ্যবাদী শিক্ষা সংকোচন নীতির প্রতিফলন স্পষ্ট হয়। শরীফ কমিশন রিপোর্টে শিক্ষাকে পণ্য হিসেবে বর্ণনা করে সস্তায় শিক্ষা লাভের ধারনাই বদলে দেওয়ার চেষ্টা করা হয়।

শিক্ষার অবাধ বাণিজ্যিকীকরণের পাশাপাশি জাতীয় স্বার্থবিরোধী ওই রিপোর্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বায়ত্বশাসনের পরিবর্তে সরকারী নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠার ভুমিকা পালন করে।

ছাত্র সমাজ শরীফ শিক্ষা কমিশনের ওই বুর্জোয়া নীতি মেনে নেয়নি। প্রতিরোধে, আন্দোলনে শিক্ষা রিপোর্ট বাতিল করতে বাধ্য হয় সরকার।

তৎকালীন ছাত্র ইউনিয়নের নেতৃত্বে ছাত্র সমাজের দূর্বার আন্দোলনে ১৯৬২’র সাম্প্রদায়িক ও বাণিজ্যিক শিক্ষানীতি বাতিল করা হয়।

সম্পর্কিত সংবাদ
নিজস্ব প্রতিবেদক