পেঁপে শরীরের ভয়াবহ ক্ষতি করে!

পেঁপে শরীরের ভয়াবহ ক্ষতি করে!

পেঁপে একটি সবজি বা ফল আমাদের শরীরের জন্য খুবই উপকারী। কাঁচা অবস্থায় পেঁপে সবজি আর পাকা অবস্থায় ফল। পেঁপেতে প্রচুর পরিমাণ মিনারেল, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং ভিটামিন রয়েছে যা স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী। শুধু তাই নয়, পেঁপেকে ভিটামিনের স্টোর বলা হয়।

অন্যান্য ফলের তুলনায় পেঁপেতে ক্যারোটিন অনেক বেশি থাকে। আর ক্যালরির পরিমাণ বেশ কম থাকায়, যারা মেদ সমস্যায় ভুগছেন তারা পেঁপে খেতে পারেন অনায়াসে। শুধু ওজন হ্রাস নয় সাথে পেঁপের রয়েছে আরও নানা স্বাস্থ্য উপকারিতা। এই ফলে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন এ ও সি আছে। পেঁপেতে আছে পটাশিয়াম। তাই এই ফল রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে। পাশাপাশি হাইপারটেনশনও কমায়। শরীরে থাকা বিভিন্ন ক্ষতিকর কোলেস্টরলের মাত্রা কমিয়ে দেয় পেঁপে। কিন্তু এই পেঁপে কতটা ক্ষতিকর, আসুন তা জেনে নেয়া যাক-

১) পাকা পেঁপে ভিটামিন সি এবং ই এর ভাল উৎস। একই সাথে এতে প্রচুর ফাইবার ও ফলিক এসিড আছে। কাঁচা পেঁপেতে লেটেক্স আছে যা ইউটেরিনের সাথে সমস্যা করে। কাঁচা পেঁপে খেলে মিসক্যারেজ হয় বা মৃত শিশু জন্ম নেয় এই প্রচলিত ধারনা এখনো ভুল প্রমানিত হয়নি। তাই বেশিরভাগ মায়েরাই গর্ভাবস্থায় পেঁপে খাননা এবং ডাক্তাররাও না খাওয়ার জন্যেই পরামর্শ দেন।

২) খাদ্যনালীতে সমস্যার সৃষ্টি করে। পেঁপে খাওয়া ভাল, কিন্তু অতিরিক্ত পেঁপে খেলে তা আপনার ইসোফাগাসে সমস্যার সৃষ্টি করবে। তাই দিনে এক কাপের বেশি পেঁপে খাওয়া উচিৎ নয়।

৩) পেঁপেতে ‘পাপাইন’ নামের একটি উপাদান রয়েছে। এটা এত বেশি বিষাক্ত যে, গর্ভের শিশুর যেকোনো অঙ্গ নষ্ট করে ফেলে। আবার শিশুকে মাতৃদুগ্ধ পান করানোর সময় পেঁপে খাওয়া ঠিক নয়। তাই কয়েক মাস পেঁপে না খাওয়া উত্তম।

৪) পেঁপের মাঝে যে আঠা থাকে তা এলার্জির সমস্যা বৃদ্ধি করে। কাঁচা পেঁপে থেকে এই সমস্যা বেশি সৃষ্টি হয়।

৫) নিম্ন রক্তচাপের সৃষ্টি করে পেঁপে। তাই আপনি যদি প্রেশারের রোগী হয়ে থাকেন, তাহলে পেঁপে খাওয়া বাদ দিন।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট