নতুন মাঠে অ্যাটলেটিকোর পুরোনো গ্রিজম্যানই

নতুন মাঠে অ্যাটলেটিকোর পুরোনো গ্রিজম্যানই

 

কত হাসি-কান্না, কত স্মৃতি, কত শিরোপা! এক নিমেষেই ভিসেন্তে ক্যালদেরনের স্মৃতি ভুলে যাওয়া সম্ভব নয় অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ সমর্থকদের জন্য। তবে অ্যান্টনে গ্রিজম্যানের কথা শুনে মনে হতে পারে আগের মাঠের কথা তার মাথাতেই নেই। পুরানো মাঠের স্মৃতি ভুলে নতুন মাঠ ওয়ান্ডা মেট্রোপলিটানোকে যে নিজের খেলা সেরা মাঠের উপাধি দিয়ে বসেছেন এই ফরাসী ফরোয়ার্ড।

গত এক বছর ধরেই নতুন হোমগ্রাউন্ড ওয়ান্ডা মেট্রোপলিটানোতে ওঠার সমস্ত প্রক্রিয়া ধাপে ধাপে সম্পন্ন করেছে অ্যাটলেটিকো। শনিবার হয়ে গেল নতুন মাঠের উদ্বোধনও। জাঁকজমকতার কোন কমতি রাখেননি রোজা ব্লাঙ্কোস কর্তারা। ম্যাচের বল নিয়ে আকাশ থেকে মাঠে অবতরণ করেছেন স্পেন বিমান বাহিনীর ছত্রীসেনারা। ৬৩ হাজার দর্শক ধারণ ক্ষমতার স্টেডিয়াম ছিল কানায় কানায় পূর্ণ।

তবে এদিন সবচেয়ে বড় চমক ছিল স্পেনের রাজা ষষ্ঠ ফিলিপের উপস্থিতি। রিয়াল মাদ্রিদকে ছাড়িয়ে রাজা ব্যক্তিগতভাবেও যে অ্যাটলেটিকোর বড় ভক্ত।

যদিও আরেকটু হলেই সমস্ত উৎসব ভেস্তে দিতে বসেছিল নতুন মাঠের প্রথম অতিথি দল মালাগা। প্রথম ৬০ মিনিট নিজেদের রক্ষণ বেশ ভালোমতই সামলে রেখেছিল আন্দালুসিয়ার দলটি। শেষ পর্যন্ত জেতা হয়নি মালাগার। গ্রিজম্যানের একমাত্র গোলে জয় দিয়েই নতুন মাঠের উদ্বোধন স্মরণীয় করে রেখেছে অ্যাটলেটিকো।

তার গোলেই নতুন মাঠে স্মরণীয় গোল পেয়েছে দল। ওয়ান্ডা মেট্রোপলিটানোকে তাই নিজের খেলা সেরা মাঠের তকমা দিয়ে দিয়েছেন গ্রিজম্যান, ‘আমার খেলা সেরা স্টেডিয়াম এটা। এই মাঠে প্রথম গোল করতে পেরে আমি গর্বিত।’

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট