জেনে নিন যৌনতা কীভাবে নারীকে ইতিবাচক কাজে প্রভাবিত করে

জেনে নিন যৌনতা কীভাবে নারীকে ইতিবাচক কাজে প্রভাবিত করে

পুরুষমনে জায়গা করে নেওয়া ছাড়াও যৌনতা নারীকে আরও অনেকভাবে ভালো থাকতে সাহায্য করে। শরীর সুস্থ রাখে। হতাশা দূর করে মন ভালো রাখে। ঠিক কেমনভাবে যৌনতা নারীকে ইতিবাচকভাবে প্রভাবিত করে জেনে নিন

সেক্স না করলে মহিলাদের আরও একটি সমস্যার মুখোমুখি হতে হয়। সেটি হল মাইগ্রেন। সেক্সের সময় যে মুহূর্তে এনড্রোফিন হরমোন বেরিয়ে যায়, মাইগ্রেনের পেইন অনেকটাই কমে যায়।

ছেলেদের তুলনায় মেয়েদের ঘুম এমনিতেই পাতলা। কথায় কথায় ঘুমের ব্যাঘাত ঘটে মেয়েদের। অনেকের তো ঠিকমতো ঘুমটাই হয় না। এর কারণও এনড্রোফিন হরমোনের নিঃসরণ। এতে হয় কী, শরীরের সব গ্লানি মিটে যায়। অনেক শান্তিতে ঘুমনো যায়।

নিয়মিত সেক্স করলে জরায়ু (uterus) সঙ্কুচিত হয়। পিরিয়ডের সময় রক্তের বেরিয়ে যেতে সুবিধে হয়। জরায়ুতে টিশু তৈরি হয় না, ফলে এন্ডোমেট্রিওসিসের (পিরিয়ড চলাকালীন পেটে যে ব্যথা হয়) সম্ভাবনা কমে যায়।

নিয়মিত সেক্স হরমোন নিঃসরিত হলে (টেস্টোস্টেরন ও এস্ট্রোজেন) চেহারায় যৌবন নতুন করে ধরা দিতে পারে। বৈজ্ঞানিক মতে প্রমাণিত, এস্ট্রোজেনের নিঃসরণ ত্বক করে তোলে কোমল।

স্কটল্যান্ডের একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণায় বেরিয়েছিল, চাকরির ইন্টারভিউ দিতে কোনও নারীর যদি টেনশনে রাতের ঘুম উড়ে যায়, তার মনে আত্মবিশ্বাস জাগাতে পারে কেবল যৌনতা। শুধু তাই নয়, প্রতি সপ্তাহে অন্তত একবার সেক্স করলে স্ট্রেস দূর হয়, সকলের সাথে আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে মিশতে পারা যায়।

তথ্যসূত্র: ইন্ডিয়াডটকম

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট