ভয়ঙ্কর এই কন্ডোম বোমাতেই কি রাশিয়াকে ধ্বংস করতে চায় আইএস?

ভয়ঙ্কর এই কন্ডোম বোমাতেই কি রাশিয়াকে ধ্বংস করতে চায় আইএস?

ধারাবাহিক বিমান হানায় জেরবার আইএসআইএস জঙ্গিরা। উপর্যুপরি অভিযান চালাচ্ছে রাশিয়ার বিমান। গত শনিবার জঙ্গি ঠিকানা ৪৯টি আস্তানা ও তাদের কনভয় ধ্বংস করেছে রুশ যুদ্ধবিমানের স্কোয়াড্রন। সুখোই-২৫ যুদ্ধবিমানের অব্যর্থ নিশানা জঙ্গিদের মারাত্মক ক্ষতি করেছে বলে দাবি মস্কোর। কিন্তু রুশ অভিযানে তারা যে বিন্দুমাত্র বিচলিত নয়, তা প্রমাণ করতেই যেন এবার নয়া চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করেছে আইএসআইএস। শুনতে আশ্চর্য লাগলেও এবার তাদের হাতিয়ার কন্ডোম।

কন্ডোমের মধ্যেই বিস্ফোরক ঠুসে এক নতুন ধরনের মারণাস্ত্র ব্যবহার শুরু করেছে আইএস। ইতিমধ্যেই সেই সংক্রান্ত একটি ভিডিও-ও প্রকাশ করা হয়েছে আইএসআইএসের তরফে। সেখানে দেখা যাচ্ছে, কন্ডোমের আস্তরণে এক অদ্ভুত বোমা তৈরি করেছে জঙ্গিরা। সঙ্গে ঠুসে দেওয়া হচ্ছে কট্টরপন্থী মুসলিম সন্ত্রাসবাদী জিগির। এই বোমা আকাশ লক্ষ্য করে উৎক্ষেপণ তা প্রচণ্ড জোরে বিস্ফোরিত হচ্ছে। তবে সিরিয়ার ঠিক কোন কোন শহর এই বোমা হামলার শিকার হবে, বলা বাহুল্য সে সম্পর্কে কিছু বলা হয়নি ভিডিওতে।

তবে ভিডিওতে রাশিয়াকে আই এস সংগঠন হুমকি দিয়েছে, বিমান হানা বন্ধ না করলে চরম মূল্যের জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে পুতিন সরকারকে। যদিও কট্টরপন্থী মুসলিম সন্ত্রাসবাদীরা নিজেরাও ভালো করে জানে, রাশিয়া আমেরিকা নয়৷ সন্ত্রাসবাদীদের খতম করতে তারা দরকার পড়লে আপন দেশের নাগরিকদের জীবন নিয়েও ছিনিমিনি খেলতে পিছপা হয় না৷ চেচেন কট্টরপন্থী মুসলিম সন্ত্রাসবাদীরা তার প্রমাণ একবার পেয়েছিল মস্কোয় দর্শকভরতি বলশয় থিয়েটার দখল করে, আর একবার পেয়েছিল বেসলানের একটি স্কুলের নাবালক ছাত্রছাত্রীদের পণবন্দি করে৷ দুবারই রাশিয়া সন্ত্রাসবাদীদের খতম করেছিল দেশের সাধারণ নাগরিকদের জীবনের বিনিময়ে৷

 

 

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট