গায়ে দুর্গন্ধ কিন্তু জানান দেয় অনেক সমস্যা

গায়ে দুর্গন্ধ কিন্তু জানান দেয় অনেক সমস্যা

গন্ধ দিয়ে যায় চেনা! আর দুর্গন্ধ দিয়ে বোঝাও যায় অনেক কিছু। দেহের কোনও রোগ বাস বেঁধেছে কি না তা-ও নাকি বুঝতে পারবেন আপনি। অনেক সময়ই ঘামের গন্ধে আশপাশের মানুষের টেকা দায় হয়ে পড়ে। দুর্গন্ধ হয় কেন? তাতে কী বোঝা যায়? কেমন করেই বা দুর্গন্ধ ঠেকাবেন, তা জেনে নিন

body odour

অনেকই জানেন না, আসলে ঘাম থেকে দুর্গন্ধ ছড়ায় না। ত্বকের উপরে থাকা ব্যাকটেরিয়াই এর আসল কারণ। ঘামের অ্যাসিডের সঙ্গে তাদের বিক্রিয়ার ফলেই দেহে দুর্গন্ধ হয়।

body odour

মহিলাদের থেকেও পুরুষদের গায়ে বেশি দুর্গন্ধ হয়। কারণ, পুরুষদেরা সাধারণত মহিলাদের থেকে বেশি ঘামেন।

spicy food

ওজন বেশি হলে, নিয়মিত স্পাইসি ফুড খাওয়ার অভ্যস্ত হলে বা মদ্যপান করলেও ঘামের সমস্যা বাড়তে পারে।

diabetes checking

দেহে নিয়মিত দুর্গন্ধ হলে সাবধান হন। অনেকেই ব্লাড সুগার লেভেল পরীক্ষা করান না। দেহে শর্করার মাত্রা বাড়লেও মুখে দুর্গন্ধ হতে পারে।

body odour

কিডনি বা লিভারের সমস্যা থাকলেও গায়ে দুর্গন্ধ হতে পারে। দেহের বর্জ্য পদার্থ বার করে দিতে মুখ্য ভূমিকা নেয় কিডনি ও লিভার। কিডনি ও লিভার ঠিক মতো কাজ না করলে রক্তে ও পরিপাক যন্ত্রে টক্সিন জমতে থাকে। যার থেকে দেহে দুর্গন্ধ হয়।  

perfume for underarms

দেহের দুর্গন্ধ মানেই যে আপনি কোনও রোগে ভুগছেন এমনটা সব সময় সঠিক নয়। সে ক্ষেত্রে কী ভাবে দেহের দুর্গন্ধ এড়াবেন? আপনার বগল সব সময় পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন এবং শুকনো রাখুন। দেহে ঘাম জমলে সেখানে ব্যাকটেরিয়া বাসা বাঁধতে পারে।  

workout

জিমে ওয়ার্কআউট করলে ঘামে ভিজে জবজবে হবেনই। জিম করেই আপনার পোশাক বদল করুন।

fruits

ডায়েটে সামান্য রদবদল করুন। বেশি ভাজাভুজি বা তেল-মশলাদার খাবার এড়িয়ে চলুন। তার বদলে ডায়েটে রাখুন ফল ও শাক-সব্জি।

 

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট