ভালো কিছু পাওয়ার আশায়- সাকিব আল হাসান

ভালো কিছু পাওয়ার আশায়- সাকিব আল হাসান

নতুন অধ্যায় শুরু করতে যাচ্ছেন সাকিব আল হাসান। আজ দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টি-২০ দলের নেতৃত্ব দিবেন তিনি। ভালো কিছু করার জন্য সতীর্থদের দিকে তাকিয়ে বাংলাদেশ টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। দুই ম্যাচের টি-২০ সিরিজ শুরুর আগে ব্লমফন্টেইনে ম্যাচ পূর্ববর্তী সংবাদ সম্মেলনে সতীর্থদের কাছ থেকে সেরা পারফরম্যান্স প্রত্যাশা করেছেন তিনি।

সাকিব বলেন, “টি-টোয়েন্টির একটা সুবিধা আছে যে, একজন-দুইজন বোলার ভালো বোলিং করতে পারলে কিংবা একজন-দুইজন ব্যাটসম্যান ভালো ব্যাটিং করলে ম্যাচ জিতে যাওয়া সম্ভব। আমি কখনোই বলব না যে কাজটা সহজ। দক্ষিণ আফ্রিকা সবসময়ই কঠিন একটা জায়গায়। যেহেতু আমাদের হারানোর কিছু নেই, আমার মনে হয়, এটাই আমাদের একটা সুযোগ। আমি তো চাই, সবাই নিজের সেরা পারফরম্যান্স করুক। চেষ্টা সবাই করবে। কিন্তু সবাই যে ভালো করবে এমন কোনো কথাও নেই।”

দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে ইনজুরিতে পড়েছেন বাংলাদেশের একের পর এক ক্রিকেটার। সেরা ক্রিকেটারদের পায়নি বাংলাদেশ। তবে টি-টোয়েন্টি স্কোয়াডে যারাই আছেন তাদের নিয়েই লড়াই করতে চান সাকিব, “অনেকের চোটের সমস্যা। টি-টোয়েন্টির জন্য আলাদা দল হয় না আমাদের। ওয়ানডে-টেস্ট খেলে যারা, বেশির ভাগ তাদেরই দেখা যাচ্ছে এই সংস্করণে। স্বাভাবিকভাবে দল নির্বাচনে ওইভাবে চিন্তার সুযোগও নেই। খেলোয়াড়ই আছে ১৪ জন। এখান থেকেই সেরা একাদশ করতে হবে। আমাদের জন্য এটা ভালো সুযোগও। এ পরিস্থিতিতেও ভালো জায়গায় যেতে পারলে আমাদের চারিত্রিক দৃঢ়তা দেখানো যাবে সবাইকে।”

এদিকে ম্যাচ নিয়ে বেশি ভাবতে চান না সাকিব। চিন্তামুক্ত ক্রিকেট খেলতে চান এই ক্রিকেটার, “যত বেশি চিন্তা করব, তত বেশি ঝামেলা! এই দুটি ম্যাচ দল হিসেবে খেলতে হবে।

টি-টোয়েন্টি অনেক ছোট সংস্করণ, এখানে চিন্তা করার সময়ও নেই। এটা আমাদের জন্য ভালো দিক। টেস্ট ও ওয়ানডেতে অনেক চিন্তার সময় থাকে। যত বেশি চিন্তা করা হয়, তত জটিলতা বাড়তে থাকে। এখানে চিন্তার সময় নেই, জটিলতা বাড়ার সুযোগও কম। জিনিসটা সহজ রেখে কাজ করলে দুটি ম্যাচে ভালো খেলা সম্ভব।”

আজ বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ সময় রাত ১০টায় প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচ শুরু হবে।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট