কক্সবাজারের উদ্দেশে রওয়ানা দিয়েছেন খালেদা জিয়া

কক্সবাজারের উদ্দেশে রওয়ানা দিয়েছেন খালেদা জিয়া

কক্সবাজারে রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনসহ চট্রগ্রাম বিভাগের বিভিন্ন জেলায় ৪ দিনের সফরে চট্রগ্রামের পথে রওনা হয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া।

শনিবার বেলা পৌনে ১১ টার দিকে গুলশানের বাসা থেকে বের সড়ক পথে চট্টগ্রামের উদ্দ্যেশে রওনা হয়েছেন তিনি।

তার গাড়ি বহরে দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ সিনিয়র নেতৃবৃন্দরা রয়েছেন। প্রশাসন ও চেয়ারপারসনের নিরপত্তাকর্মীদের পাশাপাশি পুরো সফরে ছাত্রদল, যুবদল, স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতাকর্মীরা খালেদা জিয়ার গাড়িবহরের সার্বিক নিরাপত্তা দেবে।

রবিবার সকাল ১১টায় সড়ক পথে কক্সবাজার যাবেন বিএনপি প্রধান। তিনি সার্কিট হাউজে রাত্রিযাপন করবেন। এবং আগামী সোমবার দুপুরে কক্সবাজারের উখিয়ার বালুখালী, বোয়ালমারা ও জামতলী রোহিঙ্গা শিবির পরিদর্শন করবেন খালেদা জিয়া।

খালেদা জিয়া দুপুরে ফেনীর সার্কিট হাউজে যাত্রা বিরতি করবেন। সেখানে মধ্যাহ্নভোজ সেরে ফের যাত্রা করে চট্টগ্রাম সার্কিট হাউজে পৌঁছাবেন রাতে। রোহিঙ্গা শিবির পরিদর্শন শেষে বিকালে চট্টগ্রামে ফিরে সার্কিট হাউজে রাত্রিযাপন শেষে মঙ্গলবার সকালে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা হবেন তিনি।

গত ২৫ অগাস্ট মিয়ানমারের রাখাইনে সেনাবাহিনীর দমন অভিযানের মুখে বাংলাদেশ রোহিঙ্গাদের ঢল নামলে তাদের আশ্রয় দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছিলেন বিএনপি চেয়ারপারসন। লন্ডন থেকে গত ১৮ অক্টোবর দেশে ফেরার পর এখন রোহিঙ্গা শিবির পরিদর্শনে যাচ্ছেন বিএনপি নেত্রী

২০১২ সালে কক্সবাজারের রামুতে বৌদ্ধ পল্লীতে হামলা ও ভাংচুরের পর ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শনে কক্সবাজারে যান খালেদা জিয়া। তখনও তিনি ঢাকা থেকে সড়কপথে প্রথমে চট্টগ্রাম এবং পরে সেখান থেকে কক্সবাজার যান।

চট্টগ্রামে বিএনপি-ছাত্রদলের সঙ্গে পুলিশের ধস্তাধস্তি : চট্টগ্রাম ব্যুরো জানায়, চট্টগ্রামে বিএনপি-ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের ধস্তাধস্তি হয়েছে। শুক্রবার বিকালে বিএনপি-ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা মিছিল নিয়ে কাজীর দেউড়ি থেকে দলীয় কার্যালয় নাসিমন ভবনের দিকে যাওয়ার সময় এ ঘটনা ঘটে।

ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সহসাংগঠনিক সম্পাদক সাইফুদ্দিন সালাম মিঠু জানান, বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার চট্টগ্রাম সফর উপলক্ষে প্রস্তুতি সভায় অংশ নিতে নাসিমন ভবনের দলীয় কার্যালয়ে মিছিলসহকারে যাওয়ার সময় পুলিশ তাদের বাধা দেয়। এ সময় নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের ধস্তাধস্তি হয়। তবে এতে কেউ আহত হয়নি।

তবে, নগর বিএনপির সভাপতি ডা. শাহাদাত হোসেন বলেন, এটা তুচ্ছ ঘটনা। এ রকম একটু-আধটু হয়েই থাকে। তিনি বলেন, উৎসবমুখর ও আনন্দঘন পরিবেশে খালেদা জিয়াকে চট্টগ্রামে বরণ করা হবে। নগর বিএনপির সভাপতি ডা. শাহাদাত হোসেনের সভাপতিত্বে প্রস্তুতি সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন বিএনপির কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান।

অন্যদের মধ্যে ছিলেন চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা গোলাম আকবর খন্দকার, কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান মীর মোহাম্মদ নাছির উদ্দিন, গিয়াস উদ্দিন কাদের চৌধুরী, নগর সহসভাপতি আবু সুফিয়ান, সাধারণ সম্পাদক আবুল হাশেম বক্কর, সাংগঠনিক সম্পাদক কামরুল ইসলাম প্রমুখ। কোতোয়ালি থানার এসআই গোলাম ফারুক ভূঁইয়া জানান, বিএনপি-ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের মিছিলে পুলিশ বাধা দেয়নি। তারাই মারমুখী ছিল।

সম্পর্কিত সংবাদ
নিজস্ব প্রতিবেদক