বিলবাওকে হারিয়ে শীর্ষেই থাকল বার্সেলোনা

বিলবাওকে হারিয়ে শীর্ষেই থাকল বার্সেলোনা

 

লিওনেল মেসি ও পাওলিনিয়োর গোলে আথলেতিক বিলবাওকে হারিয়েছে বার্সেলোনা। ফলে লা লিগায় জয়ের ধারা ধরে রেখেছে দলটি।

শনিবার রাতে সান মামেসে বিলবাওকে ২-০ গোলে হারিয়েছে কাতালান ক্লাবটি। মৌসুমে এখন পর্যন্ত অপরাজিত বার্সেলোনার এটা লা লিগে টানা দ্বিতীয় ও মোট নবম জয়।

শুরু থেকেই আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে জমে ওঠে লড়াই। চতুর্দশ মিনিটে রাউল গার্সিয়ার শট বার্সেলোনা ডিফেন্ডার সামুয়েল উমতিতির হাতে লাগলে পেনাল্টির আবেদন করে স্বাগতিকরা। তবে সাড়া মেলেনি রেফারির।

দুই মিনিটের ব্যবধানে দুটি সুযোগ নষ্ট করেন আরিৎস আদুরিস। সপ্তদশ মিনিটে দুর্বল হেডের পর গোলরক্ষককে একা পেয়েও ব্যর্থ হন স্প্যানিশ এই ফরোয়ার্ড। তার শট বাঁয়ে ঝাঁপিয়ে ঠেকান মার্ক আন্ড্রে টের-স্টেগেন।

পাল্টা আক্রমণে পরের মিনিটে পাওয়া প্রথম সুযোগেই দলকে এগিয়ে দিতে পারতেন মেসি। সুয়ারেসের সঙ্গে একবার বল দেওয়া নেওয়া করে ছয় গজ বক্সে ঢুকে পড়েন, গোলরক্ষককেও কাটান; কিন্তু শট বাধা পায় পোস্টে।

৩৬তম মিনিটে গোলের অপেক্ষা শেষ হয় বার্সেলোনার। বাঁ দিকে জর্দি আলবাকে বল বাড়িয়ে ডি-বক্সে ঢুকে পড়েন মেসি। বাইলাইন থেকে স্প্যানিশ ডিফেন্ডারের কাটব্যাক পেয়ে আট গজ দূর থেকে প্রথম শটেই গোলটি করেন তিনি।

এবারের লিগে এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ গোলদাতা মেসির এটা দ্বাদশ গোল। সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে মৌসুমে তার গোল হলো ১৫টি।

চার মিনিট পর আবারও দুর্ভাগ্য অতিথিদের বাধা হয়ে দাঁড়ায়; ডি-বক্সের মধ্যে মেসির দারুণ পাস ধরে পাওলিনিয়োর নেওয়া শট লাগে ক্রসবারে।

দ্বিতীয়ার্ধের অষ্টম মিনিটে ভাগ্যের ফেরে গোলবঞ্চিত হয় বিলবাও। গার্সিয়ার হেডে বল লাগে ক্রসবারে। ৭৭তম মিনিটে তার আরেকটি প্রচেষ্টা রুখে দেন টের-স্টেগেন।

দ্বিতীয়ার্ধে একের পর এক আক্রমণ করে যাওয়া বিলবাওয়ের শেষ দিকে আরেকটি গোলের প্রচেষ্ট রুখে দেন পুরো ম্যাচে দারুণ খেলা টের-স্টেগেন। আদুরিসের হেড ডান দিকে ঝাঁপিয়ে ঠেকান জার্মান এই গোলরক্ষক।

যোগ করা সময়ের দ্বিতীয় মিনিটে জালের দেখা পান পাওলিনিয়ো। মেসির পাস পেয়ে সুয়ারেসের নেওয়া শট ঠেকিয়ে দেন গোলরক্ষক। কিন্তু ফিরতি বল ফাঁকায় পেয়ে সহজেই জালে জড়ান ব্রাজিলের মিডফিল্ডার পাওলিনিয়ো। ১০ ম্যাচে ২৮ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে বার্সেলোনা।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট