ইন্ডিয়ান আইডলের ‘গায়ক’ যখন পেশাদার ডাকাত

ইন্ডিয়ান আইডলের ‘গায়ক’ যখন পেশাদার ডাকাত

চেয়েছিলেন গায়ক হতে৷ হয়ে গেলেন মোস্ট ওয়ান্টেড ডাকাত৷ চুরি ও ডাকাতির অভিযোগে সম্প্রতি দিল্লি পুলিশ সুরজ বাহাদুর নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছ৷ জানা গিয়েছে, বিলাসবহুল জীবন কাটাতে বেছে নিয়েছে চুরি ও ডাকাতির পেশাকে৷ হাত পাকতে বেশি সময় লাগেনি৷ চটজলদি হয়ে উঠেছিল পেশাদার ডাকাত৷

কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ারিং পাশ ডাকাত সুরজের বায়োডাটা দেখলে চোখ কপালে উঠতে বাধ্য৷ চোস্ত ইংরেজি বলতে পারে৷ মার্শাল আর্টে দুটো গোল্ড মেডেল আছে তার ঝুলিতে৷

এর বাইরে আরও একটি গুণ আছে সুরজের৷ সে খুব ভালো গান গায়৷ গায়ক হওয়ার স্বপ্ন দেখত সে৷ সেই স্বপ্নপূরণ করতে ২০০৮ সালে জনপ্রিয় ট্যালেন্ট শো ইন্ডিয়ান আইডলে অংশগ্রহণ করে সুরজ৷ প্রথম রাউন্ড অবধি গিয়ে পরে ছিটকে যায়৷ পরে ইউটিউবে নিজের গানের ভিডিও আপলোড করত৷ কিন্তু সেখানেও বিশেষ সুবিধা করে উঠতে পারেনি৷

গানের জগতে কিছু করে উঠতে না পেরে অপরাধ জগতের দিকে পা বাড়ায় সুরজ৷ ছোটখাটো ছিনতাই দিয়ে শুরু হয় হাত পাকানো৷ তারপর ভালো দাঁও মারতে শুরু করে৷ সম্প্রতি দুই সহযোগীর সঙ্গে মিলে এক ব্যক্তির কাছ থেকে সোনার চেন ও চামড়ার ব্যাগ ছিনতাই করেছিল৷

তদন্তে নেমে পুলিশ সুরজের কাছ থেকে দেশি বন্দুক, পেপার স্প্রে ও স্কুটার বাজেয়াপ্ত করেছে৷ পুলিশ জানিয়েছে, ডাকাতির টাকা ক্লাবে ও দামী জামা কাপড়, ব্র্যান্ডেড জিনিস কিনেই উড়িয়ে দিত সুরজ৷ ধরা পড়ার পর সাংবাদিকদের সামনে অনুরোধে ‘ইশক সুফিয়ানা’ গানও গায় একদা ইন্ডিয়ান আইডল গায়ক৷

এই প্রথম নয়৷ এর আগেও পুলিশের জালে ধরা পড়েছিল সুরজ৷ চুরির অভিযোগে ২০১৪ সালে তাকে গ্রেফতার করা হয়৷ তার বিরুদ্ধে চব্বিশটি ফৌজদারি মামলা ঝুলছে৷

 

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট