‘সন্ত্রাসী আর ডাকাতের মধ্যে পার্থক্য কী?’

‘সন্ত্রাসী আর ডাকাতের মধ্যে পার্থক্য কী?’

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে অভ্যর্থনা জানানোর জন্য লাখো মানুষের ঢল হবে কেন? এটাই এখন সরকারের প্রতিহিংসার জ্বালা। রিজভী বলেন, আমরা বলেছি- আওয়ামী লীগ ডাকাতের মতো খালেদা জিয়ার গাড়িবহরে হামলা করেছে।

এতে নাকি তারা রাগ করেছে। ডাকাত বললে রেগে যায় আওয়ামী লীগের বুদ্ধিজীবীরা। সন্ত্রাসী আর ডাকাতের মধ্যে পার্থক্য কী? সন্ত্রাসী বললে ওরা খুব একটা মাইন্ড করেন না। সন্ত্রাসীরা কী ফেরেশতা, নাকি মাদার তেরেসার অনুসারী? আজ জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে কক্সবাজার যাওয়ার পথে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার গাড়িবহরে হামলার প্রতিবাদে জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দল আয়োজিত এক মানববন্ধনে রিজভী এমন প্রশ্ন করেন।

রিজভী বলেন, জনতার ঢল দেখে মনের জ্বালা মেটানোর জন্য ফেনীতে সরকারের লেলিয়ে দেয়া বাহিনী গণমাধ্যমের গাড়িসহ-বিএনপির নেতাকর্মীদের উপর হামলা করেছে। তাদের মনের জ্বালা তো মেটাতে হবে। কারণ ফেনী হচ্ছে আওয়ামী লীগের সন্ত্রাসীর একটি বড় ফ্যাক্টরি। সেখানে অনেক হাজারীদের জন্ম হয়। সকাল থেকেই পাদুয়ার বাজার, চান্দিনা, কুমিল্লায় ওবায়দুল কাদেরের লেলিয়ে দেয়া বাহিনী লাঠিসোটা নিয়ে আক্রমণ করেছে।

কিন্তু জনতার ঢলের কাছে কাদের বাহিনী টিকতে পারেনি। তাই এগিয়ে গেছে বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার গাড়িবহর। আওয়ামী লীগ এখন মনে জ্বালা মিটাবে কী করে?

প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন আয়োজক সংগঠনের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আবুল হোসেনের সভাপতিত্বে বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আতাউর রহমান ঢালী, সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক সাদেক খান প্রমুখ বক্তব্য দেন।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট