রোহিঙ্গা গণহত্যার প্রতিবাদে হোয়াইট হাউসের সামনে মার্কিনিদের বিক্ষোভ

রোহিঙ্গা গণহত্যার প্রতিবাদে হোয়াইট হাউসের সামনে মার্কিনিদের বিক্ষোভ

মিয়ানমারে রোহিঙ্গা মুসলমানদের ওপর হত্যা-নির্যাতনের প্রতিবাদে আমেরিকার প্রেসিডেন্টের দাপ্তরিক বাসভবন হোয়াইট হাউসের সামনে বিক্ষোভ করেছেন মার্কিন জনগণ।

আমেরিকার বার্তাসংস্থা এসোশিয়েটেড প্রেস জানিয়েছে, গতকালের বিক্ষোভে দেশটির প্রভাবশালী মুসলিম মানবাধিকার সংগঠনগুলো অংশ নিয়েছে। বিক্ষোভে অংশগ্রহণকারী সংগঠনগুলোর মধ্যে কাউন্সিল অন অ্যামেরিকান-ইসলামিক রিলেশন্স (সিএআইআর), ইসলামিক সোসাইটি অব নর্থ আমেরিকা (আইএসএনএ) ও মুসলিম অ্যামেরিকান সোসাইটি (এমএএস) অন্যতম। বিক্ষোভকারীরা রোহিঙ্গা মুসলমানদের বিরুদ্ধে সহিংসতা বন্ধে মিয়ানমার সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

বিক্ষোভকারীরা এ সময় মিয়নামার সরকারের বিরুদ্ধে বিভিন্ন শ্লোগান দেন। তাদের হাতে বিভিন্ন দাবি সম্বলিত ব্যানারও দেখা গেছে।

মার্কিন দৈনিক ‘ওয়াশিংটন পোস্ট’ মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে জাতিগত শুদ্ধি অভিযান প্রসঙ্গে লিখেছে, রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে জাতিগত শুদ্ধি অভিযান শুরুর পর তিন মাস পার হলেও মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প রোহিঙ্গা নির্যাতন সম্পর্কে নিরব রয়েছে এবং তার সরকার এ বিষয়ে কোনো পদক্ষেপই নেয় নি।

জাতিসংঘের পরিদর্শকরা এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, মিয়ানমারে যা ঘটছে তা মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধ।

গত ২৫ আগস্ট থেকে মিয়ানমারের রোহিঙ্গা মুসলমানদের ওপর সেদেশের সেনাবাহিনী জাতিগত শুদ্ধি অভিযান শুরু করার পর থেকে এ পর্যন্ত প্রায় ছয় হাজার মুসলমান নিহত ও অপর অন্তত আট হাজার মানুষ আহত হয়েছে। এ ছাড়া, নির্যাতন থেকে রক্ষা পেতে পাঁচ লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা মুসলমান প্রতিবেশী বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট