বাংলাদেশ চীনের ‘ওয়ান বেল্ট ওয়ান রোড’ উদ্যোগের সমর্থক’

বাংলাদেশ চীনের ‘ওয়ান বেল্ট ওয়ান রোড’ উদ্যোগের সমর্থক’

তথ্যমন্ত্রী ও জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদ সভাপতি হাসানুল হক ইনু এমপি বলেছেন, বাংলাদেশ এক চীন নীতি ও চীনের ‘ওয়ান বেল্ট ওয়ান রোড’ নতুন উদ্যোগের দৃঢ় সমর্থক। সেই সঙ্গে সামরিক হস্তক্ষেপমুক্ত শান্তিপূর্ণ বিশ্বায়ন এবং গণতান্ত্রিক ও সমাজতান্ত্রিক পথে উন্নয়নশীল দেশগুলোর উন্নতি ও বৈষম্যমুক্ত সমৃদ্ধিতে বিশ্বাসী বাংলাদেশ।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর হোটেল সোনারগাঁয়ে সফররত চীনা কমিউনিস্ট পার্টির সিনিয়র নেতা ওয়াং ইয়াজুনের সঙ্গে বৈঠক শেষে তথ্যমন্ত্রী একথা বলেন।

সকালে ঘন্টাব্যাপী এই বৈঠকে বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক ও কমিউনিস্ট দলগুলোর প্রতিনিধিদের পক্ষে নেতৃত্ব দেন জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদ সভাপতি হাসানুল হক ইনু।

সমাজতান্ত্রিক ও কমিউনিস্ট দলগুলোর প্রতিনিধির মধ্যে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম, বাংলাদেশের সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়ুয়া, জাসদ সাধারণ সম্পাদক শিরিন আখতার, জাসদ প্রেসিডিয়াম সদস্য অধ্যাপক ড. আনোয়ার হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

আলোচনা বিষয়ে তথ্যমন্ত্রী বলেন, বৈঠকে আমরা বলেছি, বাংলাদেশ ‘এক চীন নীতি’ সমর্থন করে, চীনের প্রেসিডেন্ট যে নতুন ‘ওয়ান বেল্ট-ওয়ান রোড’ নীতি গ্রহণ করেছেন, সেটিও সমর্থন করে। আমরা মনে করি, উন্নয়নশীল দেশের জন্য সমাজতান্ত্রিক পথ অনুসরণ করা মঙ্গলজনক, কারণ তা উন্নয়নও দেবে বৈষম্যও কমাবে। সেইসঙ্গে সামরিকীকরণ, আধিপত্যবাদ ও বহি:হস্তক্ষেপ থেকে মুক্ত বিশ্বায়নের সমর্থক বাংলাদেশ।

তথ্যমন্ত্রী শি জিং পিং দ্বিতীয়বারের মতো চীনা কমিউনিস্ট পার্টির জেনারেল সেক্রেটারি হওয়ার তাঁকে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানান। একইসঙ্গে তিনি বাংলাদেশের প্রতি অব্যাহত অর্থনৈতিক সহযোগিতার জন্য চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিন পিংকে ধন্যবাদ জানান।

সম্পর্কিত সংবাদ
নিজস্ব প্রতিবেদক