গুলশানে নিহতদের প্রতি প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

গুলশানে নিহতদের প্রতি প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

রাজধানীর আর্মি স্টেডিয়ামে গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারিতে নিহত ব্যক্তিদের কফিনে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সোমবার সকাল ১০টা ৫ মিনিটে  প্রধানমন্ত্রী শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

শ্রদ্ধা নিবেদনের পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্বজনদের কাছে লাশ হস্তান্তর করেন। দুপুর ১২টা পর্যন্ত সর্বস্তরের সাধারণ জনগণের শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য মঞ্চ উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা নিবেদনের পর একে একে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান, ভারতের রাষ্ট্রদূত, ইতালির রাষ্ট্রদূত, জাপানের রাষ্ট্রদূত, যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত, নিহত বাংলাদেশি নাগরিকদের পরিবারবর্গ, নিহত দুই পুলিশ কর্মকর্তার পরিবারবর্গ, আওয়ামী লীগ, ১৪ দল, এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি ও বিশিষ্টজনরা।

উপস্থিত ছিলেন, তিন বাহিনীর প্রধান, মন্ত্রিপরিষদের সদস্য, ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণের মেয়রসহ বিশিষ্ট ব্যক্তিরা। এরপর স্বজনদের কাছে লাশ হস্তান্তর করেন প্রধানমন্ত্রী।

মৃতদেহ ময়নাতদন্তের পর গতকাল রোববারই হস্তান্তর করা হবে-এই আশায় স্বজনেরা সকাল থেকেই সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) অপেক্ষা করতে শুরু করেন। পরে সিএমএইচ থেকে তাঁদের আজ সকাল ১০টায় আর্মি স্টেডিয়ামে আসতে অনুরোধ জানানো হয়। জানানো হয় সেখানেই লাশ হস্তান্তর করা হবে। গুলশানে জঙ্গি হামলার রক্তাক্ত সমাপ্তি হয়েছে। তবে এখনো শোক কাটিয়ে উঠতে পারেনি জাতি। সরকার দুই দিনের রাষ্ট্রীয় শোক ঘোষণা করেছে।

গতকাল রোববার ভোর থেকে ঢাকাসহ সারা দেশের অফিস-আদালতে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখার মাধ্যমে শোক পালন শুরু হয়। আজও শোকপালন করছে জাতি।

গত শুক্রবার রাতে গুলশানের হলি আর্টিজান রেস্তোরাঁয় জঙ্গি হামলা চালানো হয়। সেসময় দুই পুলিশ কর্মকর্তা নিহত হন। শনিবার সকালে জিম্মিদের উদ্ধারে কমান্ডো অভিযান চালানো হয়। পরে সেখান থেকে ১৭ বিদেশিসহ ২০ জিম্মির লাশ উদ্ধার করা হয়। কমান্ডো অভিযানে ছয় জঙ্গি নিহত হয় ও একজনকে সন্দেহভাজনকে আটক করা হয়।

সম্পর্কিত সংবাদ
নিজস্ব প্রতিবেদক