জেনে নিন কখন কোথায় ঈদ জামাত

জেনে নিন কখন কোথায় ঈদ জামাত

বরাবরের মতো এবারও রাজধানী ঢাকায় ঈদুল ফিতরের প্রধান জামাত হবে জাতীয় ঈদগাহ ময়দানে, সকাল সাড়ে ৮টায়। সুপ্রিম কোর্ট সংলগ্ন জাতীয় ঈদগাহ ময়দানে ঈদের প্রধান জামাতে বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদের জ্যেষ্ঠ ইমাম হাফেজ মাওলানা মুহাম্মদ মিজানুর রহমান ইমামতি করবেন বলে ইসলামিক ফাউশনের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ, সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি, মন্ত্রিসভার সদস্য, সংসদ সদস্য, রাজনীতিবিদসহ সব শ্রেণি পেশার মানুষ এ জামাতে অংশ নেবেন।

পাশাপাশি বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদেও ঈদের পাঁচটি জামাত হবে। বৃহস্পতিবার সকালে ঈদের নামাজ পড়বেন বাংলাদেশের মুসলমানরা।

বায়তুল মোকাররমে ঈদের দিন সকাল ৭টা থেকে এক ঘণ্টা পর পর মোট পাঁচটি জামাত হবে বলে ইসলামিক ফাউন্ডেশন থেকে জানানো হয়েছে।

আবহাওয়া প্রতিকূল হলে সকাল ৯টায় বায়তুল মোকাররমের জামাতই ঈদের প্রধান জামাত হবে বলে ধর্ম সচিব মো. আব্দুল জলিল গত ১৪ জুন সচিবালয়ে আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা শেষে সাংবাদিকদের জানিয়েছিলেন।

নারীদের জন্য ঈদগাহে নামাজ পড়ার আলাদা ব্যবস্থা রাখা হবে। এছাড়া বিদেশি রাষ্টদূত ও কূটনৈতিকদের ঈদের নামাজের জন্য আলাদা জায়গা সংরক্ষণ করা হবে বলে সাংবাদিকদের জানান তিনি।

প্রতিবারের মতো এবারও দেশের বৃহত্তম ঈদ জামাত হবে কিশোরগঞ্জের শোলাকিয়া ঈদগাহ ময়দানে। ঈদের দিন সকাল ১০টায় এই জামাত পরিচালনা করবেন মাওলানা ফরিদ উদ্দিন মাসউদ।

এছাড়া বিশ্ব জাকের মঞ্জিল ও বনানী দরবার শরিফে সকাল সাড়ে ১০টায় জামাত হবে।

ঢাকা

ঈদগাহ ও বায়তুল মোকাররমসহ ঢাকার চার শতাধিক স্থানে ঈদ জামাতের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে এবার।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) আওতায় ৫৭টি ওয়ার্ডের প্রতিটিতে ৪টি করে মোট ২২৮টি এবং ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) আওতায় ৩৬টি ওয়ার্ডে ৫টি করে মোট ১৮০টি ঈদ জামাত হবে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় মসজিদে সকাল ৮টা ও ৯টায় দুটি জামাত হবে। এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের সলিমুল্লাহ হল গেইট সংলগ্ন মাঠে সকাল ৮টায় এবং শহীদুল্লাহ হলের লনে সকাল ৮টায় ঈদের জামাত হবে ।

ঈদের দিন সকাল ৮টায় বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের দক্ষিণ প্লাজায় জাতীয় সংসদের প্রধান হুইপ, মন্ত্রিসভার সদস্য, সংসদ সদস্য ও সংসদ সচিবালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা ঈদ জামাতে অংশ নেবেন।

আরমানিটোলা মাঠে সকাল ৯টায়, লক্ষ্মীবাজারের মিয়া সাহেবের ময়দান খানকা শরিফ জামে মসজিদে সকাল সাড়ে ৭টায়,

নীলক্ষেতের বাবুপুরা শাহ্ সাহেব বাড়ি মরিয়ম বিবি শাহি মসজিদে সকাল সাড়ে ৮টায় ও ১০টায় হবে দুটি জামাত।

দেওয়ানবাগ শরিফের বাবে রহমতে তিনটি ঈদের জামাত হবে সকাল ৮টা, সাড়ে ৯টা ও ১০টায়। মাতুয়াইল দরবারে মোজাদ্দেদিয়ায় সকাল ৯টা ও সাড়ে ৯টায় হবে দুটি জামাত।

কাজীপাড়া কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে তিনটি জামাত হবে সাড়ে ৭, সাড়ে ৮ ও সোয়া ৯টায়। মিরপুর ১১ নম্বরের বায়তুল ফালাহ কমপ্লেক্সে সকাল সাড়ে ৭টা ও সাড়ে ৮টায় দুটি জামাত হবে।

খিলক্ষেত কুর্মিটোলা উচ্চবিদ্যালয় ও কলেজ ঈদগাহ ময়দানে দুটি জামাত হবে ৮টা ও পৌনে ৯টায়। গুলশান সেন্ট্রাল মসজিদ এবং ঈদগাহ ময়দানে সকাল ৮টায় ও সাড়ে ৯টায় দুটি জামাত হবে।

দক্ষিণ মুগদা ব্যাংক কলোনি রসুলবাগ জামে মসজিদে সাড়ে ৭ ও সাড়ে ৮টায় দুটি জামাত হবে। দক্ষিণ বনশ্রী কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে সকাল সাড়ে ৭টা ও সাড়ে ৮টায় দুটি জামাত হবে।

মোহাম্মদপুর জামে মসজিদ কমপ্লেক্সে সকাল পৌনে ৮টায় ঈদ জামাত হবে। আর মোহাম্মদপুরের মসজিদ-এ-তৈয়্যেবিয়ায় ৮টা ও ৯টায় হবে দুটি জামাত।

এছাড়া পল্লবীর ছয় নম্বর সেকশন কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ, এলিফ্যান্ট রোডের এরোপ্লেন মসজিদ, কল্যাণপুর হাউজিং এস্টেট জামে মসজিদ, পল্লীমা সংসদ, নয়াপল্টন জামে মসজিদ, ঢাকা রেলওয়ে স্টেশন প্ল্যাটফর্ম, মগবাজার বিটিসিএল কলোনি জামে মসজিদ, মধ্যবাড্ডা কানু মিয়ার পুকুরপাড় জামে মসজিদ, কারওয়ান বাজারের আম্বর শাহ শাহি জামে মসজিদ, মোহাম্মদপুর কৃষি বাজার তাহেরিয়া জামে মসজিদ ও মোহাম্মদপুর বায়তুল ফালাহ জামে মসজিদ, দারুস সালামের মীরবাড়ি আদি জামে মসজিদ, গেণ্ডারিয়া ধূপখোলা মাঠ, আগারগাঁওয়ের দারুল ইমান জামে মসজিদ, মেরাদিয়া ভূঁইয়াপাড়া বায়তুল ফালাহ জামে মসজিদ, বনশ্রী-মেরাদিয়া আবে জমজম মসজিদ, আবুজর গিফারী কলেজ মাঠে এবং ধানমন্ডি ঈদগাহ জামে মসজিদে সকাল ৮টায় ঈদ জামাত হবে।

চট্টগ্রাম

চট্টগ্রামে ঈদুল ফিতরের প্রধান ঈদ জামাত সকাল সাড়ে ৮টায় নগরীর জমিয়তুল ফালাহ প্রাঙ্গণে হবে। ইমামতি করবেন জমিয়তুল ফালাহ জাতীয় মসজিদের খতিব জালাল উদ্দিন আল কাদেরী। সেখানেই পরের জামাত হবে সাড়ে ৯টায়।

এছাড়া নগরীর বাকলিয়া সিটি করপোরেশন স্টেডিয়াম এবং লালদীঘি জামে মসজিদে সকাল সাড়ে ৮টায় ঈদ জামাত হবে। জালালাবাদ আরেফিন নগর সিটি করপোরেশন জামে মসজিদে ঈদ জামাত হবে সকাল সোয়া ৮টায়। প্রাকৃতিক দুর্যোগে এ সব মাঠের সংশ্লিষ্ট মসজিদে ঈদ জামাত হবে।

রাজশাহী

রাজশাহীতে প্রধান জামাত হবে সকাল ৮টায় হযরত শাহ মখদুম (র.) কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে। বৈরী আবহাওয়া থাকলে ওই সময়ে পাশাপাশি হযরত শাহ মখদুম (র.) দরগা জামে মসজিদে একাধিক জামাত হবে।

রাজশাহী সিটি করপোরেশন, ইমসলামিক ফাউন্ডেশন ও রাজশাহী শাহ মখদুম দরগা ট্রাস্ট থেকে দেওয়া তথ্যে জানানো হয়েছে, নগরীর সাহেব বাজার বড় রাস্তায়, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ঈদগাহ এবং টিকাপাড়ায় মহানগর ঈদগাহ ময়দান, হাজী লাল মুহাম্মদ ঈদগাহ মাঠে সকাল ৮টায়, রাজশাহী বিভাগীয় স্টেডিয়ামে (তেরখাদিয়া)সিরোইল সরকারি হাই স্কুল ঈদগাহ মাঠে সকাল সোয়া ৮টায় ঈদের জামাত হবে।

অপরদিকে নগরীর বুলনপুর ঈদগাহ মাঠ ও রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ৮টায়, রাজশাহী জজ কোর্ট ঈদগাহ, লক্ষ্মীপুর ভাটাপাড়া ঈদগাহ, রায়পাড়া বসরী ঈদগাহ, কাঁঠালবাড়ীয়া ঈদগাহ, রায়পাড়া ঈদগাহ, রাজশাহী কোর্ট স্টেশন, শালবাগান গণপূর্ত মাঠ, মোল্লাপাড়া ঈদগাহ, কোর্ট বুলনপুর ঈদগাহ মাঠ, খোজাপুর গোরস্থান ঈদগাহ, সাতবাড়িয়া কেন্দ্রীয় ঈদগাহ মাঠে সকাল সাড়ে ৮ টায় ঈদের জামাত হবে।

সিলেট

সিলেটে শাহী ঈদগাহ ময়দানে সকাল সাড়ে ৮টায় নগরীর প্রধান জামাত হবে। একই সময়ে হযরত শাহজালাল (র) ও হযরত শাহপরাণ (র) দরগাহ মসজিদে, সিলেট জেলা প্রশাসক কালেক্টরেট মাঠে, সরকারি আলিয়া মাদ্রাসা মাঠ, ডাক বাংলা রোডের নবাবী জামে মসজিদে ঈদের জামাত হবে।

দারুস সালাম মাদ্রাসায় ৮টায়, জামেয়া মাদানিয়া কাজির বাজার মাদ্রাসায় সাড়ে ৭টায়, দক্ষিণ সুরমার বরইকান্দি ঈদগাহ ময়দানে সকাল ৯টায়, পশ্চিম পীরমহল্লা জামেয়া গৌসুল উলুম মাদ্রাসায় পৌনে ৮টায় এবং কুদরত উল্লাহ জামে মসজিদে সাড়ে ৭টায়, সাড়ে ৮টায় ও ৯টায় ঈদের তিনটি জামাত অনুষ্ঠিত হবে।

খুলনা

বর্ষা ও দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে এ বছর পবিত্র ঈদ-উল-ফিতরের প্রধান জামাত হবে খুলনা টাউন জামে মসজিদে। সকাল ৮টা, ৯টায় এবং ১০টায় এখানে তিনটি জামাত হবে।

এছাড়া খুলনা সিটি করপোরেশন পরিচালিত বায়তুন নূর জামে মসজিদ কমপ্লেক্সে সকাল ৯টা এবং সকাল ১০টায় দুটি জামাত হবে।

নগরীর শেখপাড়া পুরাতন জামে মসজিদ, ইসলামাবাদ ঈদগাহ ময়দান, খালিশপুর ঈদগাহ ময়দান এবং লায়ন্স স্কুল ময়দান ও খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে সকাল সাড়ে ৮টায় ঈদের জামাত হবে।

বরিশাল

বরিশালে সকাল সাড়ে ৮টায় হেমায়েত উদ্দিন কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে ঈদের প্রধান জামাত হবে। তবে বিভাগের সবচেয়ে বড় ঈদের জামাত হবে সকাল ৯টায় চরমোনাই দরবার শরীফ ময়দানে। স্বরূপকাঠি উপজেলার ছারছিনা দরবার শরিফে বৃহত্তর ঈদের নামাজ হবে সকাল সাড়ে ৮টায়।

জামে কশাই মসজিদ এবং এবায়েদুল্লাহ জামে মসজিদে সকাল সাড়ে ৮টা ও সকাল ১০টায় দুটি করে জামাত হবে। বায়তুল মোকাররম জামে মসজিদ, আঞ্জুমান ঈদগাহ ময়দান, পুলিশ লাইন্স জামে মসজিদ, নুরিয়া জামে মসজিদে সকাল সাড়ে ৮টা ও সাড়ে ৯টায় দুটি করে জামাত হবে।

রংপুর

রংপুরে ঈদুল উল ফিতরের প্রধান জামাত হবে সকাল সাড়ে ৮টায় কালেক্টরেট ঈদগাহ মাঠে। এছাড়া কোর্ট জামে মসজিদে সকাল সাড়ে ৮টা এবং সাড়ে ৯টায় দুটি জামাত হবে।

সাড়ে ৮টা থেকে ১০টার মধ্যে নগরীর অন্যান্য ঈদগাহ মাঠ ও মসজিদে ঈদ জামাত হবে।

সম্পর্কিত সংবাদ
নিজস্ব প্রতিবেদক