সীমান্তে বিএসএফের নির্যাতনে বাংলাদেশির মৃত্যু

সীমান্তে বিএসএফের নির্যাতনে বাংলাদেশির মৃত্যু

কুড়িগ্রামের রৌমারী সীমান্তে পাথর নিক্ষেপে এক বাংলাদেশিকে হত্যা করেছে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ)। নিহত রাশেদুল ইসলাম (২৭) রৌমারী সদর ইউনিয়নের পূর্ব ইজলামারী এলাকার নয়ারচর গ্রামের লুৎফর রহমানের ছেলে।

বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে রৌমারী উপজেলার বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তের ১০৬৬/১এফ নং আন্তঃর্জাতিক সীমানা পিলারের কাছে ভন্দুরচর সীমান্তের কালোর ব্রিজ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। রাত ১২টা পর্যন্ত তার মরদেহের সন্ধান পাওয়া যায়নি।

নিহতের স্বজনরা দাবি করেছেন, ভারতে বোনের বাড়ি থেকে বেড়ানো শেষে দুইটি গরু নিয়ে কালোর নদী হয়ে দেশে ফিরছিলেন রাশেদুল। পথে সীমান্তের ওই ব্রিজের উপর থেকে তাকে লক্ষ্য করে পাথর নিক্ষেপ করে ৫৭ বিএসএফের মানকারচর ক্যাম্পের সদস্যরা। এতে রাশেদুলের মৃত্যু হয় ও মরদেহ নদীতে ভেসে যায়। এ সময় বিএসএফের পাথরের আঘাতে একটি গরু মারা যায়। ঘটনার পরপরই ইজলামারী বিজিবি ক্যাম্পের জোয়ানরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে।

এ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)-৩৫ ব্যাটালিয়নের রৌমারী কোম্পানি কমান্ডার সুবেদার কাজী রফিকুল ইসলাম জানান, ঘটনাস্থলে আমাদের টহল দল রয়েছে। তারা খোঁজখবর নিচ্ছেন। রাশেদুল মারা গেছেন কিনা, তা তারা না ফেরা পর্যন্ত সঠিকভাবে বলা যাচ্ছে না ।

সম্পর্কিত সংবাদ
নিজস্ব প্রতিবেদক