ভাইয়ের হাতে পাকিস্তানি অভিনেত্রী খুন

ভাইয়ের হাতে পাকিস্তানি অভিনেত্রী খুন

বিতর্কিত পাকিস্তানি মডেল তথা অভিনেত্রী কান্দিল বালোচকে হত্যা করল তাঁর ভাই। পারিবারিক সম্মান রক্ষার্থে তাঁকে খুন করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গিয়েছে।

এদিন শনিবার মুজফফরাবাদের গ্রিন টাউন এলাকায় তাকে গুলি করে খুন করা হয়। পাকিস্তানের ইসলামিক সমাজে যেখানে মহিলাদের অন্তঃপুরনিবাসী থাকাই নিয়ম সেখানে কান্দিল বালোচ মডেল ও অভিনেত্রী হিসাবে বেশ নাম করেছিলেন।

তাঁর খোলামেলা পোশাক ও নানা ধরনের বিতর্ক সবসময় তাঁকে সংবাদের শিরোনামে রেখেছে। তিনি তাঁর কেরিয়ারে যতটা সফল ছিলেন, তার চেয়েও বেশি তিনি জনপ্রিয় ছিলেন ইন্টারনেটের মাধ্যমে সারা পৃথিবীর কাছে।

বিভিন্ন স্যোশাল নেটওয়ার্কিং সাইটে তাঁর খোলামেলা পোশাক ও বিতর্কিত মন্তব্য তাঁকে অনেক খ্যাতি এনে দিয়েছিল। আর এসবই মানতে পারেনি তাঁর ভাই। কান্দিলকে এই বিনোদনের জগত ছেড়ে বেরিয়ে আসতে বলা হয়। তা না করাতেই এই খুন বলে মনে করছে পুলিশ। কিছুদিন আগেই কান্দিল জানিয়েছিলেন, তাঁকে হত্যার পরিকল্পনা করা হচ্ছে। নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন বলেও জানান তিনি। ঈদ-উল-ফিতরের পরই তিনি বাবা-মাকে নিয়ে বিদেশযাত্রা করবেন বলেছিলেন। তবে তার আগেই তাঁকে মেরে ফেলা হল।

সম্প্রতি কান্দিলের বিয়ের খবর প্রকাশ্যে আসে। জানা গিয়েছে, ১৭ বছর বয়সে হুসেন নামে এক ব্যবসায়ীর সঙ্গে তাঁর বিয়ে হয়। তবে দু’বছরের মধ্যে তাঁদের বিচ্ছেদ হয়ে যায়। বালোচের অভিযোগ ছিল, তাঁর স্বামী মারধর করত। তাঁকে জোর করে বিয়ে দেওয়া হয়েছিল বলেও দাবি করেন কান্দিল।

মূলত বিবাহ বিচ্ছেদের পরই কান্দিলের মডেলিং কেরিয়ার শুরু হয়। এরপরই বিতর্ক ও খোলামেলা পোশাকের কারণে খুব তাড়াতাড়ি পরিচিত পান তিনি। সেই পরিচিতিই কাল হল। ভাইয়ের হাতে খুন হতে হল এই পাকিস্তানি মডেলকে।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট