লক্ষ্মীপুরে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ যুবক নিহত

লক্ষ্মীপুরে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ যুবক নিহত

লক্ষ্মীপুরে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ তারেক (২৮) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় মাঈন উদ্দিন, মহিন উদ্দিন, হেলাল চৌধুরী ও সালাউদ্দিন নামে চার পুলিশ কনস্টেবল আহত হয়েছেন বলে দাবি করেছে পুলিশ।

নিহত তারেক সদর উপজেলার পার্বতীনগর ইউনিয়নের দক্ষিণ মকরদুছ গ্রামের আবদুর শুকুর ওরফে সিরাজের ছেলে। শনিবার রাত ২টার দিকে পার্বতীনগর ইউনিয়নে এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

এদিকে ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র-গুলি উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, সদর উপজেলার পার্বতীনগর ইউনিয়নে একদল ডাকাত অবস্থান করছিল। এ সময় টহল পুলিশের উপস্থিতি দেখে ডাকাতরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছুঁড়ে। পুলিশও আত্মরক্ষার্থে কয়েকরাউন্ড গুলি করে। এতে তারেক গুলিবিদ্ধসহ ৪ পুলিশ সদস্য আহত হয়।

এ সময় ঘটনাস্থল থেকে একটি দেশীয় বন্দুক ও ৪ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়।

পরে আহতদের লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে আনা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক গুলিবিদ্ধ তারেককে মৃত ঘোষণা করেন। ওই চার পুলিশ সদস্য একই হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন। নিহত তারেকের বুকে দুটি ও পিঠে একটি গুলির চিহ্ন রয়েছে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

লক্ষ্মীপুর জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) আ স ম মাহতাব উদ্দিন জানান, নিহত ডাকাত সদস্য তারেকের বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় ১১টি মামলা রয়েছে।

তারেক ২৫ মে বশিকপুর ইউনিয়নের দুই সহোদর ইব্রামি হোসেন রতন ও ইসমাইল হোসেন হত্যা মামলার আসামি বলে জানান তিনি।

সম্পর্কিত সংবাদ
নিজস্ব প্রতিবেদক