অচিরেই বন্ধ হয়ে যাচ্ছে সাকিবের রেস্টুরেন্ট

অচিরেই বন্ধ হয়ে যাচ্ছে সাকিবের রেস্টুরেন্ট

ঢাকার গুলশানের রেস্তোরায় ভয়াবহ জঙ্গী হামলার পরই নিরাপত্তা নিয়ে নড়েচড়ে বসছে সরকার। অভিজাত এলাকাগুলোর নিরাপত্তার স্বার্থে এসব এলাকা থেকে সবধরনের রেস্তোরাসহ সব ধরণের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান উচ্ছেদের সিদ্দান্ত নিয়েছে সরকার।

এর ফলের বনানীতে অবস্থিত সাকিব আল হাসানের রেস্তারা সাবিক’ব রাজউকের উচ্ছেদের তালিকায় পড়ার শঙ্কা দেখা দিয়েছে। সরকার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, কূটনৈতিক পাড়া হিসেবে পরিচিত গুলশান-বনানী-বারিধারা থেকে অবৈধ সকল প্রতিষ্ঠান উচ্চেদ করার। এ তালিকায় উঠে এসেছে বাংলাদেশ জাতীয় দলের ক্রিকেটার ও বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের রেস্টুরেন্ট সাকিব’স এর নাম।

এর ফলে রাজধানী উন্নয়ন কতৃপক্ষের (রাজউক) উচ্ছেদ অভিযানে পড়তে যাচ্ছে সাকিব’স। তাই বনানীতে অবস্থানরত সাকিব’স এর ভবিষ্যৎ আপাতত ধোঁয়াশার মধ্যেই রয়েছে।

উল্লেখ্য, গুলশান হামলার পরউচ্ছেদ অভিযানের জন্য  রাজউক মোট ৩৪২ টি প্রতিষ্ঠানের তালিকা তৈরী করেছে। যার মধ্যে, গুলশানে ১৯৩টি রেস্টুরেন্ট, বনানীতে ১৩৯ টি এবং বারিধারা এলাকার ১০টি রেস্টুরেন্ট রয়েছে। উল্লেখিত তালিকায় থাকা প্রতিষ্ঠানদের মালিকদের এ ব্যাপারে যথাযথ পদক্ষেপ নিতে বলা হয়েছে বলে রাজউকের পক্ষ থেকে জানা গেছে। মালিকদের অবগত করার পরও কেউ যদি যথাযথ পদক্ষেপ না নেয়, তাহলে কয়েক দিনের মধ্যেই উচ্ছেদ অভিযানে নামবে রাজউক বলে জানা গেছে।

এর আগে অবৈধ প্রতিষ্ঠান উচ্ছেদের ব্যাপারে মন্ত্রীসভায় গৃহীত সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে ও এ সিদ্ধান্তে সরকার বদ্ধপরিকর বলে নিশ্চি তকরে সাংবাদিকদের গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন বলেন, “মন্ত্রিসভার বেধে দেয়া সময়ের মধ্যে আবাসিক এলাকা থেকে অবৈধ বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান অপসারণে আমরা দৃঢ়প্রতিজ্ঞ। তবে মানবিক দিক বিবেচনায় কাজের গতি কম ছিল। কিন্তু গুলশানের অবৈধ রেস্তোরাঁয় জঙ্গি হামলার পর আমরা কঠোর অবস্থান নিতে বাধ্য হয়েছি। এ অবস্থান থেকে আমরা এক চুলও নড়ব না।”

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট