তারেক রহমানের ৭ বছরের কারাদণ্ড ও ২০ কোটি টাকা জরিমানা

তারেক রহমানের ৭ বছরের কারাদণ্ড ও ২০ কোটি টাকা জরিমানা

অর্থ পাচার মামলায় বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে দোষী সাব্যস্ত করে ৭ বছরের সাজা দিয়েছেন আপিল বিভাগ। একইসঙ্গে তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে। তার বন্ধু ব্যবসায়ী গিয়াস উদ্দিন আল মামুনের ৭ বছরের সাজা বহাল রেখেছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার সকালে বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি আমির হোসেনের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের বেঞ্চ এ রায় দেন। এর আগে এ মামলায় নিম্ন আদালত ২০১৩ সালের ১৭ নভেম্বর তারেক রহমানকে খালাস দেন এবং একই মামলার রায়ে গিয়াসউদ্দিন আল মামুনকে সাত বছরের কারাদণ্ড এবং ৪০ কোটি টাকা জরিমানা করা হয়।

গত ১৬ জুন দুদক ও মামুনের পৃথক দুটি আপিলের শুনানি শেষে সুনির্দিষ্ট দিন ধার্য না করে তা রায়ের জন্য অপেক্ষমাণ রাখা হয়েছিল। বুধবার হাইকোর্টের দৈনন্দিন কার্যতালিকায় আপিল দুটি রায়ের জন্য অন্তর্ভুক্ত করা হয়।

উলেখ্য, তারেক রহমান এই মামলার বিচার চলাকাল থেকেই পলাতক ছিলেন। বর্তমানে তিনি যুক্তরাজ্যে বসবাস করছেন। আর মামুন বিগত সেনা সমর্থিত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমল থেকে বিভিন্ন মামলায় দণ্ডপ্রাপ্ত হয়ে কারাগারে রয়েছেন।

সম্পর্কিত সংবাদ
নিজস্ব প্রতিবেদক