‘ব্রাজিলের ব্যর্থতায় নেইমার একা দায়ী নয়’

‘ব্রাজিলের ব্যর্থতায় নেইমার একা দায়ী নয়’

১৬ বছর পর হারানো শিরোপা ঘরে তুলতে নেইমারকে ঘিরে স্বপ্ন বুনেছিল ব্রাজিল। কিন্তু সেটা পূরণে পুরোপুরি ব্যর্থ হয়েছেন তিনি। মূলত এরপর থেকে তাকে নিয়ে উঠেছে প্রশ্ন। ঠিক সে সময় সেলেসাওদের এ ফরোয়ার্ড পাশে পেয়েছেন পূর্বসূরি কাকাকে। ব্রাজিলের সাবেক মিডফিল্ডার মনে করেন, বিশ্বকাপ ব্যর্থতায় নেইমারের কোন দোষ নেই।

রাশিয়ায় পা রাখার আগে দীর্ঘদিন চোটের সঙ্গে লড়াই করেছিলেন নেইমার। যে কারণে বিশ্বকাপে তাকে পাওয়া নিয়েই শঙ্কায় পড়েছিল সেলেসাওরা। শেষ পর্যন্ত মাঠে নামলেও নিজের সেরা ছন্দে দেখাতে পারেননি তারকা এ ফরোয়ার্ড। পাঁচ ম্যাচ খেলে করেন দুই গোল। কোয়ার্টার-ফাইনালে বেলজিয়ামের কাছে ২-১ গোলে হেরে ছিটকে যায় ব্রাজিল। টুর্নামেন্টে বার বার ফাউলের শিকার হয়ে রেফারিদের সহানুভূতি পেতে ‘অভিনয়’ করায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দারুণ ব্যঙ্গ-বিদ্রুপের শিকার হন নেইমার। সাবেক এসি মিলান ও রিয়াল মাদ্রিদের মিডফিল্ডার কাকা অবশ্য সমর্থন দিচ্ছেন উত্তরসূরিকে। এ ব্যাপারে তিনি বলেন, ‘দোষারোপ করার জন্য একজনকেই খোঁজার সঙ্গে আমি খুব বেশি একমত নই। ব্রাজিল হেরেছে, একা নেইমার হারেনি। ব্রাজিল জাতীয় দল কোয়ার্টার-ফাইনাল থেকে ছিটকে গেছে। তার সব কাজের প্রতিক্রিয়াই ভারসাম্যহীন। যখন সে ভালো কিছু করে, অনেক বেশি প্রশংসা হয়। আর যখন ততটা ভালো কিছু ঘটে না, এর সমালোচনাও অনেক বড় হয়।’

বিশ্বকাপে ভাল না করলেও নেইমার ঠিক পথেই আছেন বলে মনে করেন কাকা। এ ব্যাপারে তিনি বলেন, ‘২৬ বছর বয়সী একজন তরুণ হিসেবে তাকে সবকিছুই সামলাতে হয়। আমি মনে করি সে ঠিকই আছে। যারা নেইমারের সমালোচনা করে তারা নেইমারের তুলনায় বয়সে ও অভিজ্ঞতায় এগিয়ে আছে।’

২০০২ সালে বিশ্বকাপ জয় ও জাতীয় দলের হয়ে ৯২টি ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা থেকে কাকা মনে করেন নিজের প্রচেষ্টার জন্য যথাযথ কৃতিত্ব পাননি নেইমার। যে কারণে প্রতিনিয়ন তাকে সমালোচনার মুখে পড়তে হচ্ছে।

সম্পর্কিত সংবাদ
ডেস্ক রিপোর্ট