শিক্ষার্থীদের ৫ লাখ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দিতে হবে: শিক্ষামন্ত্রী

শিক্ষার্থীদের ৫ লাখ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দিতে হবে: শিক্ষামন্ত্রী

শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ জানিয়েছেন, বন্ধ হয়ে যাওয়া দারুল ইহসান বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের কাছে পাঁচ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দাবি করতে পারবেন।

সচিবালয়ে বুধবার জেলা প্রশাসক সম্মেলনে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কার্যঅধিবেশন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নে মন্ত্রী এ তথ্য জানান।

নাহিদ জানান, দারুল ইহসান অসংখ্য শাখা খুলে নানা ধরনের সার্টিফিকেট ব্যবসা করছে। আমরা বন্ধ করে দিয়েছিলাম, তারা স্টে অর্ডার নিয়ে টিকে ছিল। এখন হাই কোর্ট সরাসরি রায় দিয়েছে, জরিমানা করেছে, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছে।

দারুল ইহসানের ক্যাম্পাসসহ সব শিক্ষা কার্যক্রম বন্ধের যে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে, আইনগত ভাবেই তা করা হয়েছে বলে জানান মন্ত্রী।

ওই বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ আইন লঙ্ঘন করার কারণেই সমস্যার সৃষ্টি হয়েছিল জানিয়ে নাহিদ জানান, এজন্য যার যে ক্ষতি হয়েছে সেই ক্ষতির সমস্ত দায়িত্ব বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে নিতে হবে। অর্থাৎ যে ছাত্রের লেখাপড়া মাঝপথে থেমে গেছে সে কমপক্ষে পাঁচ লাখ টাকা দাবি করতে পারবে।

শিক্ষার্থীরা দারুল ইহসান বিশ্ববিদ্যালয়ের কাছে ক্ষতিপূরণ চাইলে সরকার তাদের সহযোগিতা করবে জানিয়ে শিক্ষামন্ত্রী জানান, এতে তারা অন্য জায়গায় পড়তে পারবে।

মালিকানা সঙ্কট, অনিয়ম-দুর্নীতি ও ‘সনদ বাণিজ্যের’ অভিযোগে সোমবার দারুল ইহসান বিশ্ববিদ্যালয়ের সব কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা করে সরকার। এছাড়া হাই কোর্টের রায়ের প্রেক্ষিতে শিক্ষা মন্ত্রণালয় বাংলাদেশের সব বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের আউটার ক্যাম্পাসও বন্ধ ঘোষণা করেছে।

সম্পর্কিত সংবাদ
নিজস্ব প্রতিবেদক